advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বাসা ফাঁকা পেয়ে বন্ধুর ছোটবোনকে ‘ধর্ষণ’

চকরিয়া প্রতিনিধি
১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৯:৩৭ | আপডেট: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৯:৪৯
প্রতীকী ছবি
advertisement

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায় এক বন্ধুর ছোটবোনকে আরেক বন্ধু ‘ধর্ষণ’ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ছগিরশাহ কাটা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গতকাল মঙ্গলবার ভুক্তভোগীর বড়ভাই বাদী হয়ে চকরিয়া থানায় মামলা দায়ের করে। তার বন্ধুকে আবদুর রহিমকে (১৯) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রহিমের বাবার নাম কামাল হোসেন। তাদের বাড়িও ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ছগিরশাহ কাটা এলাকায়।

ভুক্তভোগীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে বন্ধুকে খুঁজতে তার বাসায় যায় আবদুর রহিম। এ সময় দরজা খোলে বন্ধুর ছোটবোন। তাকে একা পেয়ে রহিম ঘরে ঢুকে দরজা বন্ধা করে দেয়। বাসায় কেউ না থাকায় বন্ধুর বোনকে কয়েকবার ধর্ষণ করে সে।

ভুক্তভোগীর বড়ভাই রাতে বাসায় ফিরলে ঘটনাটি তাকে জানায় ভুক্তভোগী। পরে তিনি বিষয়টি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য রফিক আহমদকে জানান। গত শুক্রবার ঘটনাটি নিয়ে আপোষরফা করার চেষ্টা করেন ওই ইউপি সদস্য। কিন্তু বনিবনা না হওয়ায় ভুক্তভোগীর বাবা ছেলেকে নিয়ে চকরিয়া থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। পরে অভিযান চালিয়ে রহিমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পরে পুলিশ ধর্ষণের শিকার মেয়েটিকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠায়।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুর রহমান জানান, মেয়েটিকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। ধর্ষণ মামলা দায়েরের পর আসামি রহিমকে গ্রেপ্তারের পর আদালতের মাধ্যমে জেলে পাঠানো হয়েছে।

advertisement