advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

নাজমুল-আমিনুলের অভিষেক

ক্রীড়া প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম থেকে
১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০১:১০
advertisement

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড থেকে আগেই বাদ পড়েছিলেন সৌম্য সরকার। ফলে দলে একাদশে একটি পরিবর্তন করতেই হতো। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের একাদশে তিনটি পরিবর্তন আনা হয়েছে। অভিষেক হয়েছে দুই নতুন মুখÑ টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত ও লেগ স্পিন অলরাউন্ডার আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অভিষেক আশানরূপ হয়নি শান্তর। গতকাল লিটন দাসের সঙ্গে ওপেনিংয়ে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। সৌম্য সরকার ছাড়াও দল থেকে বাদ পড়েছেন সাব্বির রহমান ও তাইজুল ইসলাম। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে কাল ফাইনাল নিশ্চিত করতে মাঠে নেমেছিল টাইগাররা। শুরুতে লিটন দাসের সঙ্গে জুটি বেঁধে ভালোভাবেই এগিয়ে যাচ্ছিল বাংলাদেশ। হঠাৎ করেই ছন্দপতন। জার্ভিসের বলে ফিরে যান শান্ত। ব্যাট হাতে ৯ বলে ১১ রান তুলতেই জার্ভিসের বলে ক্যাচ তুলে সাজ ঘরে ফেরেন শান্ত। অসাবধানী শর্ট খেলে জার্ভিসের হাতে ক্যাচ তুলে দেন তিনি। অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে ভালো পারফরম্যান্সের ফলে জাতীয় দলে ডাক পান তিনি। টেস্ট ও ওয়ানডেতে অভিষেক হয়েছিল আগেই। অপেক্ষায় ছিলেন টি-টোয়েন্টি অভিষেকের। তবে অভিষেকটা রাঙাতে পারলেন না এই ব্যাটসম্যান। ত্রিদেশীয় সিরিজের শুরু থেকেই বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের বাজে পরিস্থিতি লক্ষণীয়। ব্যাটিং দুর্দশা কাটাতেই মূলত দলের এ পরিবর্তন করা হয়েছিল। তবে ব্যাট হাতে মলিন শান্ত। জাতীয় দলের জার্সি গায়ে দুই টেস্ট ও তিনটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন তিনি। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসেবে দলে অভিষেক হলেও বরাবরই দারুণ ফিল্ডিংয়ের জন্য আলোচনায় ছিলেন শান্ত। অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অন্যতম সেরা ফিল্ডারদের একজন ছিলেন তিনি।

দলের আরেক অভিষিক্ত ক্রিকেটার আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। লেগ স্পিন অলরাউন্ডার হিসেবে দলে ডাক পেয়েছেন তিনি। ঘরোয়া ও বয়সভিত্তিক ক্রিকেটে ভালো পারফরম্যান্স করার কারণেই দলে ডাক পেয়েছেন এই তরুণ ক্রিকেটার। ত্রিদেশীয় এ সিরিজে কোনোভাবেই চেনারূপে ফিরতে পারছে না টাইগাররা। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এই ম্যাচ দিয়ে আবারও চেনারূপে ফেরার মিশনে রয়েছে টাইগাররা। এ দুই নতুন মুখের সঙ্গে দলে ফিরেছেন অভিজ্ঞ পেসার শফিউল ইসলাম। এই ম্যাচ দিয়ে আবারও ছন্দ ফিরে পেতে চান সাকিব-মুশফিকরা। অভিজ্ঞ ক্রিকেটারের সঙ্গে এই তরুণ ক্রিকেটাররা নিজেদের কতটা মেলে ধরতে পারে তা সময়ই বলে দেবে।

advertisement