advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

জোরে হেসে গেলেন ফেঁসে

আমাদের সময় ডেস্ক
১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০১:১০
advertisement

আমাদের সবারই হাসতে ভালো লাগে। কেউ মুচকি হাসে, কেউবা অট্টহাসি হাসে। কিন্তু হাসি যদি কারও জীবনে বিড়ম্বনার কারণ হয়ে যায়, তা হলে সেটি সত্যিই দুঃখজনক। সম্প্রতি চীনের এক নারী আচমকা জোরে অট্টহাসি দিতে গিয়ে বিপাকে পড়ে গিয়েছিলেন। হাসতে গিয়ে তিনি মুখ বড় করে খুলেছিলেন, আর তার পর কোনোভাবেই তা বন্ধ করতে পারছিলেন না। ঘটনাটি ঘটেছে

চীনের গুয়াং ডং প্রদেশের দক্ষিণ গুয়াংজু রেলস্টেশনের একটি ট্রেনে। ওই নারী যাত্রী ট্রেনে চড়ে যাচ্ছিলেন তার গন্তব্যে। সংশ্লিষ্ট কোনো এক ঘটনায় উচ্চস্বরে হেসে উঠেছিলেন তিনি। এর পরই তার মুখের চোয়ালের ওপরের ও নিচের অংশ স্থানচ্যুত হয়ে পড়ে। ফলে তিনি মুখ বন্ধ করতে পারছিলেন না।

তবে ওই নারীর ভাগ্য ভালো ছিল। কারণ ট্রেনে ছিলেন স্থানীয় লিওয়ান হাসপাতালের চিকিৎসক লুও ওয়েং শ্যাং। পরে তিনি ওই নারীকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন। চিকিৎসক ওয়েং শ্যাং প্রথমে ধারণা করেছিলেন স্ট্রোক হয়েছে। পরে তিনি ওই নারীর রক্তচাপ পরীক্ষা করেন। এ ছাড়া আরও কিছু পরীক্ষার পর বুঝতে পারেন যে স্ট্রোক নয়, হাসতে গিয়ে তার চোয়াল স্থানচ্যুত হয়েছে। এ কারণেই মুখ বন্ধ করতে পারছেন না ওই নারী।

ওয়েং শ্যাং এর পর ওই নারীর চোয়াল যথাস্থানে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করেন। প্রথমবারের চেষ্টায় সফল না হলেও দ্বিতীয়বারের চেষ্টায় তিনি সফল হন। ভুক্তভোগী ওই নারী জানান, এর আগেও একবার তার সঙ্গে এমন ঘটনা ঘটেছে। সেই বার বমি করতে গিয়ে তার চোয়াল স্থানচ্যুত হয়ে গিয়েছিল।

advertisement