advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

স্কুলছাত্রসহ ৭ জনের প্রাণ ঝরল সড়কে

আমাদের সময় ডেস্ক
২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০৮
advertisement

ঢাকা থেকে দুই বন্ধু জাকির হোসেন ও মিরাজ মোটরসাইকেলে চড়ে রওনা হয়েছিলেন চাঁদপুর। মোটরসাইকেল চলছিল বেপরোয়া গতিতে। এই গতিই কাল হলো তাদের জীবনে। বাড়ি পৌঁছার আগেই সড়কে লাশ হলেন তারা। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ার আলিপুরা এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোটরসাইকেলটি আইল্যান্ডের সঙ্গে ধাক্কা খায়। এতে দুমড়ে-মুচড়ে যায় মোটরসাইকেল। আর দুই বন্ধু ছিটকে পড়েন মহাসড়কে। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন জাকির। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান মিরাজ। জাকির হোসেন চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার ইছাপুরা গ্রামের মোস্তফার ছেলে। মিরাজ একই গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে। ভবেরচর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) কবির হোসেন খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। এ ছাড়া গত বধুবার রাতে ও গতকাল বৃহস্পতিবার পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় স্কুলছাত্র ও কলেজছাত্রসহ পাঁচজনের প্রাণহানি ঘটেছে। নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরÑ

ফরিদপুর : ফরিদপুর-চরভদ্রাসন আঞ্চলিক সড়কের গাজীরটেক ইউনিয়নের গাজীরটেক মোড় এলাকায় গতকাল বেলা ১১টার দিকে মোটরসাইকেল চাপায় হাজেরা বেগম নামে এক বৃদ্ধা নিহত হন। তিনি গাজীরটেক গ্রামের মৃত শেখ মোহরের স্ত্রী।

শাহজাদপুর : সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার সরিষাকোল যমুনা টেক্সটাইলস মিল এলাকায় গতকাল বেলা ১১টার দিকে তেলবোঝাই দ্রুতগামী একটি ট্যাংকলরি চাপায় চায়না বেগম নামে একজন নির্মাণ শ্রমিক নিহত হন। তার বাড়ি নাটোরের সিংড়া উপজেলার বেলকুল আলক গ্রামের বাসিন্দা।

কুড়িগ্রাম : কুড়িগ্রাম-রংপুর মহাসড়কের আরডিআরএস বাজার এলাকায় গতকাল দুপুরে বাসের ধাক্কায় খায়রুল ইসলাম লাল নামে এক সাবেক ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য নিহত হন। তিনি সদর উপজেলার হরিশ্বর কালোয়া গ্রামের বাসিন্দা।

শ্রীপুর : মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার খামারপাড়া কবরস্থান মোড়ে গত বুধবার সন্ধ্যায় ট্রাকচাপায় আল ফরহাদ কাজী (১০) নামে এক স্কুলছাত্র নিহত হয়। সে উপজেলার টুপিপাড়া গ্রামের তফাজ্জল কাজীর ছেলে ও স্থানীয় আলোকিত প্রাইভেট স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র।

মেহেরপুর : সদর উপজেলার আমঝুপি কেদারগঞ্জ বাইপাস সড়কের কোলা খালপাড়া এলাকায় গতকাল বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পাথরবোঝাই ট্রাকের সঙ্গে শ্যালো ইঞ্জিনচালিত করিমনের সংঘর্ষে করিমনচালক মোস্তাকিম নিহত হন। তিনি চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার চাড়–লিয়া গ্রামের রহমত আলীর ছেলে এবং দামুড়হুদার হোগলডাঙ্গা কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন।

advertisement