advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বিদেশি কোম্পানির লাভের অর্থ পাঠানো সহজ করল বাংলাদেশ ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক
২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০৯
advertisement

বাংলাদেশ ব্যাংকের পূর্বানুমোদন ছাড়াই এখন থেকে বাংলাদেশে কর্মরত বিদেশি কোম্পানি তাদের লাভের অংশ (আউটওয়ার্ড রেমিট্যান্স) ওই কোম্পানির হেড অফিসে পাঠাতে পারবে। তবে রেমিট্যান্স পাঠানোর ৩০ দিনের মধ্যে সব ডকুমেন্টসহ বাংলাদেশ ব্যাংকের ফরেন এক্সচেঞ্জ ইনভেস্টমেন্ট ডিপার্টমেন্টে তথ্য জানাতে হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকে এ বিষয়ে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

আগে বিদেশি কোম্পানিগুলোর স্থানীয় অফিস এদেশ থেকে কোনো অর্থ তাদের হেড অফিসে পাঠানোর জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন নিতে হতো। বাংলাদেশে কর্মরত বিদেশি কোনো কোম্পানির লাভের অংশ পাঠানোর পাশাপাশি শাখা অফিস, লিয়াজোঁ অফিস বা প্রতিনিধিত্বমূলক অফিস বন্ধের পর সম্পদ বিক্রি ও অন্যান্য অর্থ হেড অফিসে প্রেরণের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে অনুমতি নিতে হয়। একসঙ্গে ওই কোম্পানির হেড অফিস থেকে নেওয়া ধারের অর্থ ফেরত দেওয়ার ক্ষেত্রেও এ অনুমোদন প্রয়োজন হয়। এসব ক্ষেত্রে ব্যাংকগুলোর অথরাইজড ডিলার (এডি) শাখাগুলো যে তথ্য পাঠায় সেগুলোয় অনেক ঘাটতি থাকে বলে বাংলাদেশ ব্যাংক মনে করছে। এতে ওই কোম্পানির অর্থ প্রেরণের অনুমোদন দিতে অনেক দেরি হয়ে যায়। তাই বিদেশে রেমিট্যান্স পাঠানোর বিষয়টি সহজ করতে এখন থেকে পূর্বানুমোদন নিতে হবে না। পরে অনুমোদন নিলেই হবে। অবশ্য এ জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকে তথ্য পাঠানোর আগে তা ভালভাবে যাচাই করতে এডি শাখাগুলোকে বিশেষভাবে নজর দেওয়ার কথা বলা হয়েছে ওই প্রজ্ঞাপনে।

তথ্য যাচাইয়ের জন্য ১৬টি বিষয়কে ভালোভাবে দেখার জন্য এডি শাখাগুলোকে বলা হয়েছে। এগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো, বিদেশি কোম্পানির স্থানীয় অফিস বন্ধের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমোদন, রেমিট্যান্স পাঠানোর জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমোদনপত্র, বোর্ড রেজুলেশন, অডিটরের সার্টিফিকেটসহ বিগত তিন বছরের অডিট রিপোর্ট, ইনকাম ট্যাক্স ক্লিয়ারেন্স, হেড অফিসের অনুমোদন প্রভৃতি।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ থেকে রেমিট্যান্স নেওয়ার ক্ষেত্রে বিভিন্ন জটিলতার কারণে বিদেশি অনেক কোম্পানি বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে আগ্রহ দেখায় না। তাই এ বিষয়টি সহজ করা যায়, সে জন্য বিভিন্ন সময় প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

advertisement