advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

রাজৈরে যুবককে হাতুড়িপেটার পর শ্লীলতাহানির মামলা

রাজৈর প্রতিনিধি
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:১০
advertisement

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার কদমবাড়ী ইউনিয়নের গজারিয়া গ্রামে সোহাগ সিকদার নামে এক যুবককে হাতুড়িপেটা করেছেন আবেদ আলী শেখ ও তার লোকজন। ঘটনাটি ঘটে গত শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে। গুরুতর আহতাবস্থায় সোহাগ সিকদার মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তিনি সদর উপজেলার শ্রীনদী গ্রামের সেকেন্দার আলী সিকদারের ছেলে। আবেদ আলী শেখের অভিযোগ, তার মেয়ের ওড়না ধরে টান দেওয়া ও অশালীন আচরণ করেন সোহাগ। তার বিরুদ্ধে রাজৈর থানায় শ্লীলতাহানির মামলা দায়ের করেছেন তিনি।

স্থানীয় সূত্র জানা যায়, ছোটবেলা থেকেই রাজৈর উপজেলার গজারিয়া গ্রামে নানাবাড়িতে থাকেন সোহাগ। তিনি জানান, আবেদ আলী শেখের মেয়ে নবম শ্রেণির ছাত্রীর সঙ্গে তার দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। এ কারণে ক্ষিপ্ত ছিলেন তিনি। শুক্রবার মাছের ঘেরে দায়িত্ব পালন করতে যাওয়ার সময় আবেদ আলী শেখসহ ৪-৫ জন অতর্কিত তাকে ইজিবাইক থেকে টেনেহিঁচড়ে নামিয়ে গজারিয়া গ্রামের ইঙ্গুল হাওলাদারের বাড়ির সামনের রাস্তায় হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন। চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে হামলাকারীরা পালিয়ে যান। সোহাগ আরও জানান, মাঝে মাঝেই মেয়েটির বাবার লোকজন তাকে হুমকি দিত। এ কারণে তিনি রাজৈর থানায় জিডি করে রেখেছিলেন।

অভিযুক্ত আবেদ আলী বলেন, আমার মেয়েকে শুক্রবার রাস্তায় সোহাগ ওড়না ধরে টান দেয় এবং অশালীন আচরণ করে। এ নিয়ে আমার লোকজন ওকে একটু ঠেলা-ধাক্কা দিয়েছে।

রাজৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সাজাহান জানান, মেয়ের বাবার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সোহাগের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির মামলা হয়েছে। ছেলে পক্ষের কেউ কোনো অভিযোগ করেনি।

advertisement