advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বৃষ্টি হলেই মাঠে পানি

জাহিদুল হক মনির, ঝিনাইগাতী
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:১২
সামান্য বৃষ্টি হলেই শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার ‘ঝিনাইগাতী সরকারি মডেল পাইলট উচ্চবিদ্যালয়’ মাঠে এভাবে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয় - আমাদের সময়
advertisement

সামান্য বৃষ্টি হলেই শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার ঝিনাইগাতী সরকারি মডেল পাইলট উচ্চবিদ্যালয় মাঠে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। এতে বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মচারী সবাইকে দুর্ভোগ পোহাতে হয়। এছাড়া শিক্ষার্থীরা বঞ্চিত হয় খেলাধুলা থেকে। বিঘিœত হচ্ছে সৃজনশীল কাজ ও প্রতিদিনের সমাবেশ (অ্যাসেম্বলি)।

এলাকাবাসী ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সূত্রে জানা গেছে, ১৯৬১ সালে প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়টি ২০১৮ সালে সরকারিকরণ করা হয়। বর্তমানে বিদ্যালয়টিতে শিক্ষার্থী ৮১১ এবং শিক্ষক-কর্মচারী ২৫ জন। বিদ্যালয়ের পাশে বাজারের প্রধান সড়কের চেয়ে প্রায় দেড় ফুট নিচু বিদ্যালয় মাঠ। এ ছাড়া বিদ্যালয়ের তিন পাশে নতুন করে বাড়িঘর নির্মাণ করায় পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থাও ভেঙে পড়েছে। এতে শুষ্ক মৌসুমে বিদ্যালয়ের মাঠ শুকনা থাকলেও বর্ষা মৌসুমে শুরু হয় দুর্ভোগ। সামান্য বৃষ্টিতেই মাঠে সৃষ্টি হয় জলাবদ্ধতা। এতে শিক্ষার্থীরা কাঁধে বইয়ের ব্যাগ, এক হাতে জুতা নিয়ে অন্য হাতে পরনের কাপড় ধরে বিদ্যালয়ে যাতায়াত করে। আবার অনেক সময় কাপড় ভিজিয়েও যায়। একই সমস্যায় পড়েন শিক্ষক ও কর্মচারীরাও।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর বেলা আড়াইটায় দেখা গেছে, বিদ্যালয় মাঠে জমে থাকা পানিতে চার-পাঁচ শিশু খেলা করছে। বিদ্যালয়ের ল্যাব ও বিজ্ঞানাগারের বারান্দায় দাঁড়িয়ে জাল ফেলে মাছ ধরছেন একজন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, সহকারী শিক্ষকদের কক্ষেও ঝুলছে তালা।

নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী শিহাব ও রাকিবুল জানায়, সামান্য বৃষ্টিতেই বিদ্যালয়ের মাঠে হাঁটুপানি জমে। এতে স্কুলের পোশাকের সঙ্গে জুতা পরার কথা থাকলেও তা পরা যায় না। স্যান্ডেল পরে এলেও তা হাতে নিয়ে ক্লাসে ঢুকতে হয়।

বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক (শারীরিক শিক্ষা) হারুন অর রশিদ বলেন, বৃষ্টি হলেই বিদ্যালয়ের মাঠে পানি জমে। এই জলাবদ্ধতা কোনো কোনো সময় তিন দিন থাকে। এসব দিনে অ্যাসেম্বলি করানো যায় না।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত) মো. আবদুল হামিদ খান বলেন, অনেক বছর ধরে বিদ্যালয় মাঠটির এই অবস্থা। পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা ও মাঠে মাটি ভরাট করলে সমস্যার সমাধান হবে বলে জানান তিনি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও বিদ্যালয়ের পরিচালন পর্ষদের সভাপতি রুবেল মাহমুদ বলেন, বিদ্যালয়ে জলাবদ্ধতার বিষয়টি আগামী সভায় আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

advertisement