advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

কেন্দ্রীয় এক নেতার বিরুদ্ধে ৫ ভূমিহীন পরিবারের অভিযোগ

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:১২
advertisement

যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহসাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শামীম আল সাইফুল সোহাগের বিরুদ্ধে পাঁচ পরিবারের জমিদখলের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল শনিবার দুপুরে পটুয়াখালীর কলাপাড়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন উপজেলার বালিয়াতলী ইউনিয়নের ইনারা বেগম। তবে যুবলীগ নেতা সোহাগ এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

ইনারা বেগমের অভিযোগ, পাঁচটি বন্দোবস্ত কেসের মাধ্যমে সরকার তাদের এই সাড়ে সাত একর জমি বন্দোবস্ত দেয় এবং তারা ওই জমিতে বসবাসসহ চাষাবাদ করে আসছিলেন। যার প্রকৃত মালিক তারা পাঁচ পরিবার। যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা হওয়ায় ক্ষমতার অপব্যবহার করে সোহাগ সোনাপাড়া মৌজার খাস খতিয়ান ৩১৯১/৩১৯ নম্বর দাগের পাঁচ একর জমি ভূমি অফিসকে ভুল বুঝিয়ে ডিসিআর নিয়ে মাছের ঘের করেন। সাত বছর আগে তার ডিসিআরের মেয়াদ শেষ হলে তিনি ক্ষমতার অপব্যবহার করে তাদের জমিদখলে নেওয়ার চেষ্টা করেন। এর প্রতিবাদ করায় ঢাকা, পটুয়াখালী ও কলাপাড়ায় তাদের নামে ১১টি মামলা করা হয়।

অ্যাডভোকেট শামীম আল সাইফুল সোহাগ, তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তিনি ওই পাঁচ পরিবারের জমিতে কোনো ধরনের কর্মকা- পরিচালনা করছেন না।

advertisement