advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

চৌগাছায় মুক্তিপণ নিতে এসে পুলিশের ফাঁদে ৮ মামলার আসামি

চৌগাছা প্রতিনিধি
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:১২
advertisement

যশোরের চৌগাছায় অপহরণের পর মুক্তিপণের টাকা নিতে এসে মাদকসহ ৮ মামলার আসামি মারুফকে (২৭) আটক করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার চৌগাছা শহরের জমজম মিষ্টান্ন ভা-ারের সামনে থেকে তাকে আটক করা হয়। পরে অপহরণ ও চাঁদাবাজির মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। তার বিরুদ্ধে চৌগাছাসহ বিভিন্ন থানায় মাদকসহ বিভিন্ন অভিযোগে ৮টি মামলা রয়েছে। আটক মারুফ চৌগাছা পৌরসভার চাঁদপুর গ্রামের আতিয়ার রহমানের ছেলে।

মামলার এজাহার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ২০ সেপ্টেম্বর বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে আসামিরা সদর ইউনিয়নের দীঘলসিংহা গ্রামের মৃত ফয়েজ আহম্মেদের ছেলে শরিফুল ইসলামকে (২২) অপহরণ করে নিয়ে যায়। শরিফুলকে তারা আটকে রেখে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। এ ঘটনায় ভিকটিমের মা ছবেদা খাতুন চৌগাছা থানায় গিয়ে ওসি রিফাত খান রাজীবের কাছে বিস্তারিত বলেন। পরে রাত ১২টার দিকে মারুফসহ ৪ জনের নামে মামলা করেন ছবেদা খাতুন।

চৌগাছা থানার ওসি রীফাত খান রাজীবের নির্দেশে পুলিশ ভিকটিমকে উদ্ধার ও অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারে তৎপর হয়। পুলিশের পরামর্শ অনুযায়ী মারুফের সঙ্গে ছবেদা খাতুন মোবাইল ফোনে কথাবার্তা চালিয়ে যেতে থাকেন। পুলিশের ফাঁদ অনুযায়ী ছবেদা খাতুন অপহরণকারী মারুফকে চৌগাছা বাজারের ‘জমজম মিষ্টান্ন ভা-ার’ দোকানের সামনে টাকা নিতে আসতে বলেন। মারুফ সেখানে পৌঁছালে আগে থেকে ওতপেতে থাকা পুলিশের দলটি তাকে আটক করে।

advertisement