advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

তানোরে ফাইলবন্দি তিন হাজারের বেশি খারিজ -সহকারী (ভূমি) কমিশনার নেই

সাইদ সাজু তানোর
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:১২
advertisement

রাজশাহীর তানোর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) বদলি হওয়ার পর স্থবির হয়ে পড়েছে ভূমি অফিসের কাজকর্ম। ফাইলবন্দি হয়ে আছে তিন হাজারের বেশি খারিজ। এতে ভোগান্তিতে পড়েছে সাধারণ মানুষ।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, গত ১৩ জুন তানোর সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবদুল্লাহ-আল-মামুন অন্যত্র বদলি হয়ে যান। এর পর এই ভূমি অফিসে আর কোনো কর্মকর্তা দেওয়া হয়নি। গোদাগাড়ী উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইমরানুল হক এখানে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করেন। তিনি অফিস করতে আসেন সপ্তাহে মাত্র একদিন। কিন্তু ঈদুল আজহার ছুটির পর থেকে তিনি আর এই অফিসে আসেননি।

উপজেলার চাঁদপুর গ্রামের কৃষক মোহাম্মদ আলী তার জমি খারিজ বা নামজারির জন্য দেড় মাস ধরে অফিসে ঘুরছেন। কয়েকদিন আগে কেস নম্বর পান। গত ২৭ আগস্ট তার জমি খারিজ হওয়ার ফাইনাল ডেট ছিল। কিন্তু সহকারী কমিশনার (ভূমি) না থাকায় খারিজ হয়নি। কবে নাগাদ তার জমি খারিজ হবে, তাও বলতে পারছেন না অফিসের কেউ।

বাধাইড় ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান হেনা জানান, তার জমি খারিজ করার জন্য ভূমি অফিসে দিনের পর দিন এসে ফিরে যাচ্ছেন তিনি।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) না থাকায় কোনো কাজ হচ্ছে না বলে আক্ষেপ করেন তিনি। শুধু কামরুজ্জামান বা মোহাম্মদ নন, তাদের মতো অনেকেই এ পরিস্থিতির শিকার।

তানোর দলিল লেখক সমিতির সভাপতি তাছির উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) না থাকায় ভূমি সংক্রান্ত কাজকর্ম স্থবির হয়ে পড়েছে। অন্যদিকে জনসাধারণ জমি খারিজ করতে না পারায় বিক্রিও করতে পারছেন না।

এ ব্যাপারে মোবাইল ফোনে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইমরানুল হকের কাছে জানতে চাইলে সভায় আছেন বলে জানান। এর পর একাধিকবার ফোন করলেও রিসিভ করেননি তিনি।

advertisement