advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বরের বাড়িতে কনেযাত্রা

ফারুক আহমেদ গাংনী
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:৪৪
বিয়ের আসরে বর তরিকুল ইসলাম ও কনে খাদিজা আক্তার -আমাদের সময়
advertisement

কনের বাড়িতে নেচে গেয়ে বরযাত্রী এসে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সেরে কনেকে সঙ্গে করে নিয়ে যায়Ñ এমন রীতিই যুগ যুগ ধরে চলে আসছে বাংলাদেশে। কিন্তু এবার এই চিরাচরিত রীতি ভেঙে উল্টোটা ঘটেছে মেহেরপুরের গাংনীতে। গতকাল ব্যতিক্রমী এক বিয়েতে বরের বাড়িতে কনেযাত্রী হাজির হয়। এর পর বিয়ে করে কনের লোকজন বরকে নিয়ে যায় তাদের বাড়িতে।

বরের বাবা মেহেরপুর জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক মাবুদ বলেন, আমি খুব খুশি। নারী পুরুষের মাঝে যেন কোনো বৈষম্য না থাকে, এই দিক বিবেচনা করে পুরনো রীতির বাইরে গিয়ে এভাবে বিয়ের ব্যবস্থা করেছি।

কনে চুয়াডাঙ্গা জেলার হাজরাহাটি গ্রামের কামরুজ্জামানের মেয়ে খাদিজা আক্তার। তিনি এ রীতিকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, পুরুষশাসিত সমাজে একটি বিয়েতে কনেপক্ষকে অনেক ঝামেলা পোহাতে হয়। এ বিয়ের মাধ্যমে সেই রীতি ভেঙে নতুন নিয়মে বিয়ে হচ্ছেÑ এটাকে আমি স্বাগত জানাই। বর তরিকুল ইসলাম বলেন, বরের বাড়িতে কনেযাত্রী এসে বরকে নিয়ে যাবে, আর বউভাত না হয়ে বরভাত অনুষ্ঠান হবে- বিষয়টি বেশ আনন্দের। পুরাতন রীতি ভেঙে নতুন এ নিয়মেই বিয়ে হওয়া উচিত বলে মনে করেন তিনি। বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির পলিট ব্যুরোর সদস্য ও বরের নিকটাত্মীয় নূর আহম্মেদ বকুল বলেন, নতুন এ নিয়মকে আমি সাধুবাদ জানাই। এভাবে বিয়ের ফলে সমাজে নারী-পুরুষের বৈষম্য দূর হবে। এ ছাড়া বিয়েতে কনেপক্ষের একটা বিশাল খরচ হতো, সেটাও দূর হবে।

advertisement