advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

৪২ বছর আগে চুরি, অতঃপর

আমাদের সময় ডেস্ক
২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০৬
advertisement

ঘটনা ৪২ বছর আগের। বাবা-ছেলে মিলে ৪৫ টাকা মূল্যের একটা ছাগল চুরি করেছিল। চুরির অভিযোগে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তারও করে এবং তারা জামিন পান। এর পর কেটে গেছে সাড়ে তিন যুগ। এখন সেই মামলাতেই আবার গ্রেপ্তার করা হলো সেদিনের ১৬ বছর বয়সী ছেলেটিকে। তার বয়স এখন ৫৮ বছর, আর তার বাবাও বেঁচে নেই। ভারতের ত্রিপুরার বোধজং থানার ভারপ্রাপ্ত

কর্মকর্তা সুকান্ত সেন চৌধুরী গণমাধ্যমে এ ঘটনার বিবরণ দেন। তিনি জানান, ১৯৭৮ সালে আগরতলার নন্দননগর এলাকার কুমুদ ভৌমিকের একটি পাঁঠা ছাগল চুরি হয়। তিনি থানায় অভিযোগ করেন। অভিযুক্ত দুজন হলেন মোহন ও তার ছেলে বাচ্চু।

গত ১২ আগস্ট ত্রিপুরা হাইকোর্ট রাজ্য পুলিশকে নির্দেশ দেয়, পঁচিশ বছর বা তারও বেশি সময় ধরে যেসব মামলা ঝুলে আছে, তা দ্রুত নিষ্পন্ন করতে হবে। আসামিদের গ্রেপ্তার করতে হবে। তার পরই বাবা-ছেলের বিরুদ্ধে থানায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা পাঠান আদালত। আদালতের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা পেয়ে থানার ওসি সুকান্ত মামলার বাদী পক্ষের ঠিকানা বের করে তার সঙ্গে কথা বলেন। পরে স্থানীয় জিরানিয়া মহকুমার রানিরবাজার নামক এলাকার চা বাগান থেকে বাচ্চুকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মামলাকারী ছাগলের মালিকের স্ত্রী বৃদ্ধ বিজয়প্রভা জানান, তখন তার স্বামীর দুধের ব্যবসার সঙ্গে চা ও ফলের দোকান ছিল। একদিন সন্ধ্যায় বাড়ি বাড়ি দুধ দিতে বেরিয়েছিলেন তিনি। ফিরে দেখেন তার ছাগলটি নেই। গরু-ছাগল যে ছেলেটি দেখত, সেই বাচ্চুর বাড়িতে বাবা-ছেলে কেউই তখন বাড়িতে নেই।

পরদিন সকালে স্বামীকে বিষয়টি জানান বিজয়প্রভা। পরে ছাগলসহ বাবা-ছেলেকে হাতেনাতে ধরেন তার স্বামী। পরে তাদেরকে পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হলে কয়েক দিন পর তারা জামিন পায়। তবে নতুন করে মামলার বিষয়টি নিয়ে অযথা বাড়াবাড়ি করা হচ্ছে বলে মনে করেন বিজয়প্রভা।

advertisement