advertisement
advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

কারও কাছে প্রচুর অর্থ থাকা উচিত নয় : জাকারবার্গ

অনলাইন ডেস্ক
৪ অক্টোবর ২০১৯ ১৮:১৫ | আপডেট: ২৭ অক্টোবর ২০১৯ ১৪:৩৪
advertisement

যুক্তরাষ্ট্রের আগামী নির্বাচনের দুই পদপ্রার্থী বার্নি স্যান্ডার্স ও এলিজাবেথ ওয়ারেন ফেসবুকের বিরুদ্ধে নিজের শক্ত মতামত দিয়েছেন। ওয়ারেন জানিয়েছেন ফেসবুক তার অপছন্দ। অপরদিকে স্যান্ডার্স কোনো বিলিয়নিয়ার না থাকার কথা বলেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের একজন বিলিয়নিয়ার অন্তত স্যান্ডার্সের সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন। বিলিয়নিয়ারদের না থাকার পক্ষে একমত পোষণ করেছেন ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ নিজেও।

ওয়াশিংটন পোস্টের খবরে বলা হয়, সম্প্রতি ফেসবুকের কর্মীদের সঙ্গে এক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠানে হাজির হন ফেসবুক প্রধান। সরাসরি সম্প্রচার করা ওই অনুষ্ঠানে স্যান্ডার্সের মন্তব্যে জাকারবার্গের প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হয়। উত্তরে জাকারবার্গ জানান, একজন মানুষের কাছে কী পরিমাণ অর্থ থাকা যথেষ্ট তা তিনি জানেন না। তবে তিনি মনে করেন, একটা পর্যায়ে গিয়ে কারও কাছেই প্রচুর অর্থ থাকা উচিত নয়।

প্রসঙ্গত, বর্তমানে বিশ্বের শীর্ষ ১০ ধনীর কাতারে পড়া জাকারবার্গ ৭০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের সম্পদের মালিক। বিশ্বের সবচেয়ে কম বয়সী বিলিয়নিয়ার হিসেবেও তিনি পরিচিত।

গত সপ্তাহে প্রযুক্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট দ্য ভার্জ ফেসবুকের অভ্যন্তরীণ প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ফাঁস করে। ওই অনুষ্ঠানে জাকারবার্গ এলিজাবেথ ওয়ারেনের বক্তব্যের বিরোধিতা করেছিলেন। গত মার্চে প্রথম অসম প্রতিযোগিতা এবং ব্যবহারকারীর তথ্য ফাঁস রোধে ফেসবুক, আমাজন এবং অন্য বড় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো ভেঙে দেওয়ার পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণা চালান এলিজাবেথ ওয়ারেন। এরপর থেকে প্রায়ই সে প্রসঙ্গ টেনেছেন তিনি। এমনকি বিলবোর্ডও টাঙিয়েছেন। প্রায় সাত মাস পর, গত মঙ্গলবার ফেসবুকের কর্মীদের সঙ্গে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জাকারবার্গের বৈঠকের ধারণকৃত অডিও ফাঁস করে সংবাদ পোর্টাল ‘দ্য ভার্জ’।

নিজের সম্পদ নিয়ে জাকারবার্গ বলেছেন, তিনি ও তাঁর স্ত্রী প্রিসিলা চ্যান তাঁদের জীবদ্দশায় সমস্ত সম্পদ দান করে যাবেন।

advertisement