advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

হৃদরোগ হাসপাতালে সম্রাট

নিজস্ব প্রতিবেদক
৯ অক্টোবর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ৯ অক্টোবর ২০১৯ ০০:০৭
advertisement

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটকে গতকাল মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর ন্যাশনাল ইনস্টিটিটিউট অব কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজে (এনআইসিভিডি) ভর্তি করা হয়েছে। তার চিকিৎসায় হাসপাতালটির পরিচালক অধ্যাপক ডা. আফজালুর রহমানকে প্রধান করে সাত সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

এনআইসিভিডির করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) চিকিৎসাধীন সম্রাট। তার চিকিৎসার বিষয় নিয়ে গতকাল বিকাল ৩টায় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন মেডিক্যাল

বোর্ডের প্রধান অধ্যাপক ডা. আফজালুর রহমান। তিনি বলেন, সম্রাট হাসপাতালে আসার পর তার বেশ কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে। জরুরি কিছু পরীক্ষার রিপোর্ট আমরা পেয়েছি, সেগুলো ভালো। তবে তিনি যেহেতু হৃদরোগে আক্রান্ত, তাই ২৪ ঘণ্টা অবজারভেশনে রাখতে হবে। সে হিসাবে বুধবার (আজ) সকালে তার চিকিৎসার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে মেডিক্যাল বোর্ডের মিটিংয়ে।

সম্রাটের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল আছে, শঙ্কার কোনো কারণ নেই বলে জানান অধ্যাপক আফজালুর রহমান। তিনি বলেন, তাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হবে কিনা, সেটিও মেডিক্যাল বোর্ডের মিটিং শেষে জানানো হবে।

ডা. আফজালুরের নেতৃত্বে মেডিক্যাল বোর্ডের অন্য ছয় সদস্য হলেনÑ অধ্যাপক ডা. মীর জামাল উদ্দিন, অধ্যাপক ডা. নাসির উদ্দিন, অধ্যাপক ডা. কাজী আবুল আজাদ, অধ্যাপক ডা. আশরাফুল হক সিয়াম, সহযোগী অধ্যাপক ডা. মহসিন আহমেদ ও সার্জারি ডিপার্টমেন্টের প্রধান অধ্যাপক ডা. রামপদ সরকার।

ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগে ভুগছেন। বুকে ব্যথা অনুভব করায় গতকাল সকাল সাড়ে ৭টায় কারাগার থেকে তাকে প্রথমে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়। এ হাসপাতালের চিকিৎসকদের পরামর্শে পরে তাকে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে স্থানান্তর করা হয়।

ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার পর আত্মগোপনে চলে যাওয়া সম্রাটকে গত রবিবার ভোরে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের আলকরা ইউনিয়নের কুঞ্জুশ্রীপুর গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

advertisement