advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

পাকিস্তানের সিরিজ হার

ক্রীড়া ডেস্ক
৯ অক্টোবর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ৯ অক্টোবর ২০১৯ ০০:০৮
advertisement

দীর্ঘদিন ধরেই টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এক নম্বর দল পাকিস্তান। ছোট ফরম্যাটের সেরা দল হয়েও এক ম্যাচ বাকি থাকতেই নিজ মাঠে শ্রীলংকার কাছে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারল তারা। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলংকার কাছে ৩৫ রানে হারে সরফরাজের দল। ফলে তিন ম্যাচের সিরিজ জয়ের পাশাপাশি ২-০ ব্যবধানে এগিয়েও গেল সফরকারী শ্রীলংকা। আজ একই ভেন্যুতে হবে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি।

ওয়ানডে সিরিজ হারলেও দলের সেরা তারকাদের ছাড়া টি-টোয়েন্টি সিরিজ ঠিকই জিতে নিল লংকানরা। নিরাপত্তার কারণে পাকিস্তান সফরে আসেননি দলের নিয়মিত অন্তত ১০ জন খেলোয়াড়। লাহোরে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নেয় শ্রীলংকা। আগের ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করেই ৬৪ রানে জয় পেয়েছিল তারা। সে কারণেই প্রথমে ব্যাট করার পরিকল্পনা নির্ধারণ করে লংকানরা। কিন্তু শুরুটা ভালো হয়নি তাদের। দলীয় ১৬ রানেই বিদায় নেন দানুস্কা গুনাথিলাকা। ১০ বলে ১৫ রান করেন তিনি। আরেক ওপেনার আবিস্কা ফার্নান্দোও ব্যর্থতার পরিচয় দেন। ৮ রানের বেশি করতে পারেননি তিনি। ফলে ৫ ওভারে ৪১ রানের মধ্যে দুই ওপেনারকে হারায় লংকানরা।

এর পর দলের হাল ধরেন ভানুকা রাজাপাকসে ও শেহান জয়সুরিয়া। মারমুখী মেজাজেই খেলতে থাকেন তারা। এ জুটি দলের স্কোর বড় করছিলেন। রান আউটের ফাঁদে পড়ে ২৮ বলে ৩৪ রান করে ফেরেন জয়সুরিয়া। কিছুক্ষণ পর ফিরে যান রাজাপাকসেও। আউট হওয়ার আগে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের প্রথম হাফ সেঞ্চুরি করেন তিনি। ৪৮ বলে ৭৭ রান করেন রাজাপাকসে। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৮২ রান করে শ্রীলংকা। পাকিস্তানের ইমাদ ওয়াসিম-ওয়াহাব রিয়াজ-শাদাব খান ১টি করে উইকেট নেন।

সিরিজ বাঁচাতে ১৮৩ রানের লক্ষ্যে মাঠে নামে পাকিস্তান। স্কোর বোর্ডে ৫২ রান উঠতেই ৫ উইকেট হারায় পাকিস্তান। বাবর আজম ৩, ফখর জামান ৬, আহমেদ শেহজাদ ১৩, অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ ২৬ ও উমর আকমল শূন্য রান করেন। দ্রুত ৫ উইকেট হারিয়ে লড়াই থেকে ছিটকে পড়ে পাকিস্তান। এ অবস্থায় দলকে খেলায় ফেরানোর চেষ্টা করেন ওয়াসিম ও আসিফ আলি। দ্রুততার সঙ্গে রান তুলে ৪৭ বলে ৭৫ রান যোগ করেন তারা। ২৯ বলে ৪৭ রান করা ওয়াসিমকে শিকার করে শ্রীলংকাকে ব্রেক-থ্রু এনে দেন উসুরু উদানা। ওয়াসিমের বিদায়ের পর বেশিক্ষণ টেকেনি পাকিস্তানের ইনিংস।

advertisement
Evall
advertisement