advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

খুলনায় মদপানে ৮ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক খুলনা
১০ অক্টোবর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১০ অক্টোবর ২০১৯ ০০:০৭
advertisement

খুলনায় অতিরিক্ত মদপানে আটজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের সবাই সনাতন ধর্মাবলম্বীর এবং বয়সে তরুণ। এ ছাড়া গুরুতর অসুস্থ হয়ে নগরীর বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে ভর্তি রয়েছেন আরও কয়েকজন। ফলে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. আলমগীর হোসেন জানান, মদপানে অসুস্থ হয়ে গতকাল ভোররাত থেকে বেশ কয়েকজন হাসপাতালে ভর্তি হন। পরে একের পর এক তাদের মৃত্যু হয়। মৃতরা সবাই সনাতন ধর্মাবলম্বী। দুর্গাপূজায় প্রতিমা বিসর্জন উপলক্ষে তারা মদ পান করেছিলেন বলে মৃতদের স্বজনরা জানিয়েছেন।

মৃতরা হলেন নগরীর গল্লামারি এলাকার প্রসেণজিৎ দাস (২৯), গ্লাক্সোর মোড় এলাকার সজল শীল (২৬) ও অমিত শীল (২৪), ভৈরব টাওয়ার এলাকার রাজু বিশ্বাস (২৫) ও তাপস (৩২), রুপসা উপজেলার রাজাপুর এলাকার পরিমল (২৮), দীপ্ত দাস (২২) ও ইন্দ্রানী বিশ্বাস (২৫)।

খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. ওমর ফারুক জানান, অতিরিক্ত মদপানের কারণেই তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে। তবে সঠিক কারণ নিশ্চিত হতে আরও সময় লাগবে।

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার (ডিসি) এহসান শাহ বলেন, মদপানে ধারাবাহিকভাবে বেশ কয়েকজনের মৃত্যুর খবর পেয়েছি। আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছি। এদিকে গতকাল দুপুরে অসুস্থদের দেখতে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে যান সিভিল

সার্জন এএসএম আবদুর রাজ্জাক ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর খুলনার উপপরিচালক মো. রাশেদুজ্জামান।

ওই সময় সিভিল সার্জন সাংবাদিকদের বলেন, যারা মারা গেছেন তাদের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে সবাই মদ পান করেছিলেন। অনেক সময় অতিরিক্ত মদপান করার ফলে শরীরে বিষক্রিয়া হয়, এতে মানুষ মারা যায়। মদগুলো সব ভারতীয় ছিল বলে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি।

advertisement