advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

তামিমের ‘কষ্টের কথা’ জানালেন মাহমুদউল্লাহ

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৩ অক্টোবর ২০১৯ ১৯:৪৬ | আপডেট: ১৩ অক্টোবর ২০১৯ ১৯:৫৪
ফাইল ছবি
advertisement

বিশ্বকাপে তামিম ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে। প্রত্যাশা অনুযায়ী খেলতে পারেননি। এরপর শ্রীলঙ্কা সিরিজে অধিনায়ক হয়ে আরও ফ্লপ হয়েছেন। দেশসেরা এই বাঁহাতি ওপেনার চলে যান বিশ্রামে। আদতে কোনো বিশ্রাম নয়, নিজেকে ফিরে পেতে কঠোর পরিশ্রম করে যান তামিম।

নিজেকে আরও ঝরঝরে করতে তামিম চলে যান থাইল্যান্ড। নিজের ফিটনেস নিয়ে কাজ করেন একান্তে। ফলও পেয়েছেন হাতেনাতে। বিপ টেস্টে ১২.১ তুলে তাক লাগিয়ে দেন। এই তামিম ব্যাট হাতে ফিরেছেন জাতীয় লিগে।

চট্টগ্রাম বিভাগের হয়ে প্রথম ম্যাচে মাঠে নেমেছেন ঢাকা মেট্রো পোলিসের বিপক্ষে। দুই ইনিংসে তার ব্যাট থেকে আসে ৩০ ও ৪৬ রান। প্রথম ইনিংসে ৩০ রান করতে তামিম মোকাবিলা করেন ১০৫ বল আর দ্বিতীয় ইনিংসে খেলেন ১১২ বল। তামিম বড় রান না করলেও দিয়েছেন দৃঢ়তার পরীক্ষা। আর এতেই সুযোগ দেখছেন সতীর্থ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তিনি মনে করেন, তামিম ছন্দে আছেন। এই কথা বলতে গিয়েই তার কষ্টের কথা স্মরণ করিয়ে দিলেন।

'আপনারা সবাই জানেন গত কয়েক মাস ধরে ও (তামিম) অনেক কষ্ট করছে। ফিটনেস এবং ব্যাটিং নিয়ে কাজ করছে। আমি আশা করি সে ফিরে আসবে দ্রুত ইনশাল্লাহ।' তামিমের কষ্টের কথা এভাবেই বলছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

তামিমের ব্যাটিং নিয়ে মাহমুদউল্লাহ আরও বলেন, 'তামিম বেশ ভালোই ব্যাটিং করছিল। আমার কাছে মনে হয়েছে সে আসলেই কঠোর পরিশ্রম করছে। হয়তো বড় রান করতে পারেনি। তবে ওর ব্যাটিংয়ের ছন্দ দেখে মনে হয়েছে যে সে খুব ভালো ব্যাটিং করছে।‘

মাহমুদউল্লাহ এই ম্যাচে ছয় উইকেট ও ৬৩ রান করে ম্যাচ সেরা হয়েছেন। অন্য ম্যাচে মুশফিকও দুর্দান্ত ব্যাটিং করেন। এ ছাড়া রাজশাহীর বিপক্ষে ইমরুল কায়েস প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে দ্বিতীয়বারের মতো ডাবল সেঞ্চুরি করেন। মাহমুদউল্লাহ সিনিয়র ক্রিকেটারদের রান করা নিয়ে প্যানিক না হতে বললেন।

মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘আমার মনে হয় এটি (সিনিয়রদের রান) নিয়ে এত প্যানিক হওয়ার কিছু নেই। হয়তো সবাই চেষ্টা করেছে। কেউ রান করেছে, কেউ করেনি। আমি আশা করি যারা রান করেনি তারা হয়তো আরও বেশি কষ্ট করে দ্বিতীয় ম্যাচে রান করতে পারে এবং আত্মবিশ্বাসের লেভেলটি যেন আগের পর্যায়ে নিয়ে আসতে পারে সেটা চেষ্টা করবে।'’

advertisement