advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের স্পন্সর হচ্ছে যেসব প্রতিষ্ঠান

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৪ অক্টোবর ২০১৯ ১৯:২৩ | আপডেট: ১৪ অক্টোবর ২০১৯ ১৯:২৩
ফাইল ছবি
advertisement

আগেই ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল এবার বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের সপ্তম আসর হবে বঙ্গবন্ধুর নামে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বিপিএলের সপ্তম আসরটি উৎসর্গ করা হবে।  বঙ্গবন্ধু বিপিএলে থাকছে সাতটি দল। তবে ফ্র্যাঞ্চাইজি বিসিবির হাতে থাকায় আগের নামগুলো থাকছে না।

এবারের বিপিএলের দলগুলো হলো, ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী, সিলেট, রংপুর ও কুমিল্লা। নতুন স্পন্সর অনুযায়ী নতুন নাম নিয়ে হাজির হতে পারে দলগুলো।

এবার স্পন্সর প্রতিষ্ঠানেরও খোঁজ পেয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আজ সোমবার মিডিয়াম কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইওউনুস জানান, এখন পর্যন্ত চারটি স্পন্সর প্রতিষ্ঠান ঠিক হয়েছে।

ইউনুস বলেন, ‘আমাদের কাছে ইওআই যারা সাবমিট করেছিল তারা আমাদের কাছে ইন্টারভিউ দিয়েছে। প্রায় পাঁচটি কোম্পানি দিয়েছে। এর মধ্যে চারটি প্রায় কনফার্ম। যাদের আমরা নিতে পারি। 

বাকি তিনটি স্পন্সর দ্রুত ঠিক হয়ে যাবে জানিয়ে জালাল জালাল আরও বলেন, 'তাদের সঙ্গে আমাদের আলাপ-আলোচনা হয়েছে গত সপ্তাহে। এদের মধ্যে চারজন আছে। আরও তিনটি বাকি আছে। তারাও আসবে আগামী তিন-চারদিনের মধ্যে ইন্টারভিউ দেবে। এরপর ফাইনাল সাতটি দল নিশ্চিত করব।'

চারটি স্পন্সর কারা প্রশ্ন করলে নামগুলো প্রকাশ করেন। চারটি স্পন্সর হচ্ছে, টাইগার আইটি, আখতার গ্রুপ, সাগর করপোরেশন ও একটি মিডিয়া কোম্পানি। তবে মিডিয়া কোম্পানিটির নাম প্রকাশ করেননি জালাল ইউনুস।

তবে এখনো ঠিক হয়নি টাইটেল স্পন্সর। টাইটেল স্পন্সর নিয়ে জালাল ইউনুস বলেন, 'টাইটেল স্পন্সর আমরা এখনো চাইনি। খুব দ্রুত আমরা বিজ্ঞপ্তি দিব। টাইটেল স্পন্সর হয়তো পেয়ে যাবো। এই বিষয়েও কথা হয়েছে।’

সাত দল নিয়ে ডাবল লিগ রাউন্ডে প্রাথমিকভাবে ম্যাচ হবে ৪২টি। এই ম্যাচগুলোর পরে সেরা চার দল খেলবে প্লে-অফ ম্যাচ। প্লে-অফ ম্যাচ হবে তিনটি। আইপিলের পদ্ধতিতে ফার্স্ট কোয়ালিফায়ার ম্যাচ, এলিমেনেটর ম্যাচ ও সেকেন্ড কোয়ালিফায়ার ম্যাচ হবে।

এক নম্বর ও দুই নম্বর দলের মধ্যে ফার্স্ট কোয়ালিফায়ার ম্যাচে মুখোমুখি জয়ী দল সরাসরি ফাইনালে চলে যাবে। এলিমিনেটর ম্যাচে মুখোমুখি হবে তৃতীয় ও চতুর্থ দল। তাদের মধ্যে জয়ী দল ফার্স্ট কোয়ালিফায়ার ম্যাচে হেরে যাওয়া দলের বিপক্ষে সেকেন্ড কোয়ালিফায়ার ম্যাচ খেলবে। এই ম্যাচে জয়ী দল চলে যাবে ফাইনালে। অর্থ্যাৎ প্লে অফের প্রথম দুটি দলের জন্য ফাইনালে যাওয়ার জন্য দুবার সুযোগ থাকবে।

প্লে-অফের প্রত্যেক দিনের জন্য রিজার্ভ-ডে রাখা হয়েছে। লিগ পর্বের ম্যাচ প্রত্যেক দিন দুটো করে হবে। তবে প্লে অফের ম্যাচগুলো দিনে একটা করেই হবে। ৬ ডিসেম্বর শুরু হয়ে ১১ জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে বিপিএল। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হওয়ার কথা রয়েছে ৩ ডিসেম্বর।

advertisement