advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

চেয়ারম্যানের সালিসে না আসায় বৃদ্ধকে দিনভর ‘নির্যাতন’

নিজস্ব প্রতিবেদক,রংপুর
১৬ অক্টোবর ২০১৯ ১৭:৫১ | আপডেট: ১৬ অক্টোবর ২০১৯ ১৭:৫২
advertisement

রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সালিসে হাজির না হওয়ায় এক বৃদ্ধকে ধরে এনে সারা দিন আটকে রেখে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে।

গতকাল মঙ্গলবার মিঠাপুকুরের বালুয়া মাসিমপুর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। পরে ‘মিথ্যা’ অভিযোগ দিয়ে ওই বৃদ্ধকে থানায় সোপর্দ করা হয়। 

ভুক্তভোগীর পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, মিঠাপুকুরের বালুয়া মাসিমপুর ইউনিয়নের বুজরুক সন্তোষপুর চাঁদপাড়া গ্রামের বাতেন মিয়া তার বসতবাড়ির সীমানা সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে প্রতিবেশী দুলা মিয়া কেতুর (৭৫) বিরুদ্ধে ইউপিতে অভিযোগ করেন। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ইউপি চেয়ারম্যান ময়নুল হক বিবাদী দুলা মিয়া কেতুকে  সালিসে হাজির হওয়ার জন্য নোটিশ প্রদান করেন। কিন্তু দুলা মিয়া কেতু ইউপির সালিসে হাজির হননি।

সালিসে উপস্থিত না হওয়ায় দুলা মিয়া কেতুকে চৌকিদার পাঠিয়ে ইউপিতে ধরে আনেন চেয়ারম্যান। গতকাল সেখানে তাকে দিনভর নানাভাবে নির্যাতন ও মানষিক হয়রানি করেন ইউপি চেয়ারম্যান ময়নুল হক। পরে তার বিরুদ্ধে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে চৌকিদার ও চেয়ারম্যানকে আক্রমণ করার মিথ্যা অভিযোগ এনে মিঠাপুকুর থানায় সোপর্দ করা হয়। পুলিশ বিষয়টির প্রাথমিক সত্যতা না পাওয়ায় আটক দুলা মিয়া কেতুকে ছেড়ে দেয়।

বৃদ্ধ দুলা মিয়া কেতু বলেন, ‘ইউপি চেয়ারম্যান আমাকে অন্যায়ভাবে চৌকিদার দিয়ে ধরে নিয়ে ইউপি ভবনে আটক রেখে আমাকে হয়রানি করাসহ মানষিক নির্যাতন করেছে। এর বিচার চাই।’

এ বিষয়ে মন্তব্য জানতে ইউপি চেয়ারম্যান ময়নুল হকের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি। 

মিঠাপুকুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হাবিবুর রহমান বলেন, বিষয়টির স্থানীয়ভাবে মীমাংসার পরামর্শ দিয়ে বৃদ্ধকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।  

advertisement