advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

র‍্যাব কার্যালয়ে সম্রাট-আরমান

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৭ অক্টোবর ২০১৯ ১৭:৫৩ | আপডেট: ১৭ অক্টোবর ২০১৯ ২০:২৪
এনামুল হক আরমান ও ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

ক্যাসিনো কাণ্ডে গ্রেপ্তার যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ও সহসভাপতি এনামুল হক আরমানকে ডিবি পুলিশের কাছ থেকে র‌্যাব-১ কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের জ্যেষ্ঠ সহকারী পরিচালক এএসপি মিজানুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

মিজানুর রহমান বলেন, ‘সম্রাট ও আরমানকে র‌্যাব-১ কার্যালয়ে আনা হয়েছে।’  

গত ৬ অক্টোবর ভোর ৫টার দিকে সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে কুমিল্লায় অভিযান চালিয়ে সম্রাট ও তার ঘনিষ্ঠ সহযোগী এনামুল হক আরমানকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

এরপর ওই দিন বিকেলে কাকরাইলে সম্রাটের কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে মাদক, অস্ত্র ও ক্যাঙ্গারুর চামড়া উদ্ধার করে র‌্যাব। নিজ কার্যালয়ে পশুর চামড়া রাখার দায়ে ৬ মাস কারাদণ্ড দিয়ে কেরানীগঞ্জের কারাগারে পাঠানো হয় ঢাকা মহানগর দক্ষিণের বহিষ্কৃত সভাপতি সম্রাটকে। তার বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক আইনে রমনা থানায় দুটি মামলা হয়েছে।

এরপর কারাগারে থাকা অবস্থায় অসুস্থবোধ করায় সম্রাটকে গত ৮ অক্টোবর জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। ওই দিন সম্রাটকে গ্রেপ্তার দেখানোপূর্বক ২০ দিনের রিমান্ড শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। তবে তিনি অসুস্থ থাকায় আদালতে উপস্থিত না করায় ঢাকার মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনসারী অস্ত্র ও মাদক আইনের পৃথক দুই মামলায় ১০ দিন করে মোট ২০ দিনের রিমান্ড শুনানি জন্য ১৫ অক্টোবর (মঙ্গলবার) দিন ধার্য করা হয়। চিকিৎসা শেষে সম্রাটকে গত ১২ অক্টোবর ফের কারাগারে পাঠানো হয় সম্রাটকে।

গত মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা মহানগর হাকিম তোফাজ্জল হোসেন শুনানি শেষে সম্রাটকে অস্ত্র মামলায় ৫ দিন ও মাদক মামলায় ৫ দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন।  আর একই আদালত আরমানকে ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

advertisement