advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

এবার বঙ্গমাতা এশিয়ান নারী ভলিবল

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৮ অক্টোবর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০১৯ ০০:১১
advertisement

বঙ্গবন্ধু এশিয়ান মেনস সিনিয়র পুরুষ সেন্ট্রাল জোন ভলিবল চ্যাম্পিয়নশিপে বেশ কয়েকবার খেলেছে বাংলাদেশ জাতীয় ভলিবল দল। টুর্নামেন্টে আয়োজক হয়েছে বাংলাদেশ। একবার চ্যাম্পিয়ন, একবার রানার্সআপের রেকর্ডও রয়েছে লাল-সবুজদের। ছেলেদের সাফল্যের পথ ধরে এবার নতুন ইতিহাস রচনা করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ভলিবল ফেডারেশন। ভলিবলে নতুন দিগন্ত হতে যাচ্ছে উন্মোচিত। প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক কোনো আসরে খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ জাতীয় নারী ভলিবল দল। ছয় দলের অংশগ্রহণে আগামী ৯ থেকে ১৪ নভেম্বর ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে বঙ্গমাতা এশিয়ান সিনিয়র নারী সেন্ট্রাল জোন আন্তর্জাতিক ভলিবল চ্যাম্পিয়নশিপ। ছয় দলের একটি বাংলাদেশ। বাকি দলগুলো হলো আফগানিস্তান, কিরগিজস্তান, মালদ্বীপ, নেপাল এবং তুর্কমেনিস্তান। মিরপুর শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে টুর্নামেন্টের ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে। গতকাল ঢাকার ওয়েস্টিন হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ভলিবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান মিকু। এ সময় প্রতিযোগিতার সাংগঠনিক কমিটির চেয়ারম্যান ও বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, ফেডারেশনের সভাপতি ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম, প্রতিযোগিতার স্টিয়ারিং কমিটির চেয়ারম্যান ইউসুফ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ ইউসুফ, কে-স্পোটর্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহাদ করিমসহ ফেডারেশন কর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বঙ্গবন্ধু তনয়া শেখ রেহানা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান হিসেবে থাকবেন। সমাপনী অনুষ্ঠানে জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী উপস্থিত থাকবেন বলে আয়োজকসূত্র নিশ্চিত করেছেন। এশিয়ান সেন্ট্রাল জোন প্রথমবারের মতো নারীদের নিয়ে এত বড় একটি আসর আয়োজন করতে যাচ্ছে।

টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া আগে আড়াই মাসের ছোট্ট অনুশীলনপর্ব সেরেছে বাংলাদেশ। মিরপুর ইনডোর স্টেডিয়ামেই চলেছে ময়ূরী, স্বপ্নাদের অনুশীলন। পাবনা মেয়ে শাহিদা পারভীন ময়ূরীর অধিনায়কত্বে বঙ্গমাতা এশিয়ান আন্তর্জাতিক ভলিবলে খেলবে বাংলাদেশ। প্রথমবারের মতো জাতীয় দল আন্তর্জাতিক আসর খেলবে কেমন লাগছে? টুর্নামেন্টে লক্ষ্যই বা কীÑ এমন প্রশ্নের জবাবে ময়ূরী জানান, চূড়ান্ত দলে আমরা ১৫ জন মেয়ে আছি। গত আড়াই মাস ধরে আমরা কঠোর অনুশীলন করছি। বাংলাদেশে এত বড় একটা টুর্নামেন্ট হতে যাচ্ছে। অবশ্যই আমাদের লক্ষ্য ভালো কিছু উপহার দেওয়া। যতটুকু সম্ভব সেরাটা খেলা।

আসরকে ঘিরে বড় কোনো লক্ষ্যের কথা জানাননি ফেডারেশন সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান মিকু, ‘আগে আমাদের নারী জাতীয় দল ছিল না। প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক আসর খেলতে যাচ্ছে আমাদের মেয়েরা। প্রেসিডেন্টের (আতিকুল ইসলাম) জন্য এমনটা সম্ভব হয়েছে। অন্য ইভেন্টে নারীরা খেলছে; ভলিবলে কেন পিছিয়ে থাকবে। এমন চিন্তা থেকেই মূলত দল গঠন। এবার রেজাল্ট হয়তো প্রত্যাশিত হবে না। তবে শুরুটা তো হবে। ভলিবলে মেয়েরা একদিন ভালো কিছু উপহার দেবে। একই প্রত্যাশা উত্তরের মেয়র এবং ফেডারেশন সভাপতি আতিকুল ইসলামের। বঙ্গমাতার নামের টুর্নামেন্টÑ এটি মর্যাদার আসর। এখান থেকে মেয়েদের পথচলা শুরু এবং এ পথচলা অব্যাহত রাখার, মেয়েদের এগিয়ে নেওয়ার সব ধরনের সহযোগিতার আশ^াস আতিকুলের। যারা এ আয়োজনে ফেডারেশনের সঙ্গে অংশীদার হয়েছে অর্থাৎ স্পন্সরদের প্রতি ধন্যবাদ জানান আতিকুল ইসলাম। বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি টুর্নামেন্টের সফলতা কামনার পাশাপাশি মহীয়সী নারী বঙ্গমাতার কৃতিত্ব অনুষ্ঠানে তুলে ধরার প্রয়াস চালান।

advertisement