advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মাদক সম্রাট ‘এল চাপো’র ছেলে আটক, মেক্সিকোতে ব্যাপক গোলাগুলি

অনলাইন ডেস্ক
১৮ অক্টোবর ২০১৯ ১২:২২ | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০১৯ ১৫:২৭
ছবি : বিবিসি
advertisement

মেক্সিকোর উত্তরে মাদক কারবারী ‘সিনালোয়া ড্রাগ কার্টেল’র সদস্যদের সঙ্গে পুলিশের প্রচণ্ড গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দলটির নেতা ওভিডো গুজম্যান লোপেজককে আটক করার পর তার অনুসারীদের সঙ্গে পুলিশের এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

তবে এ ঘটনায় কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। যদিও পরে লোপেজকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, রাজ্য সরকার জানিয়েছে, নিয়মিত অভিযানে ওভিডো গুজম্যানকে একটি বাড়িতে খুঁজে পায় পুলিশ। এরপর তাকে আটক করা হয়। এ সময় তাকে ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য তার অনুসারীরা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। পরে পুলিশের সঙ্গে তাদের গোলাগুলি শুরু হয়।

একপর্যায়ে কুলিয়াক্যানসহ আশপাশের শহরগুলোয় তাণ্ডব চালায় লোপেজের অনুসারীরা। ট্রাকে করে বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ঘুরে পেট্রোল স্টেশন ও বেশ কয়েকটি গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়। এ ছাড়া দোকানপাটসহ বিভিন্ন স্থাপনা ভাঙচুর করে।

মেক্সিকান গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বেশ কয়েকটি মাদকসংক্রান্ত অভিযোগে তাকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

তার বাবা মাদক ‘সম্রাট’ জোয়াকিন ‘এল চাপো’ গুজম্যান গ্রেপ্তার হওয়ার পর তিনি দলের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। এল চাপো যুক্তরাষ্ট্রে ৩০ বছরের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত হয়েছেন।

৬২ বছর বয়সী এল চাপোকে নিউইয়র্কে মাদক পাচার ও মানি লন্ডারিংসহ ১০টি অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করা হয়।

তিনি মেক্সিকান জেল থেকে ২০১৫ সালে একটি টানেলের মধ্যে দিয়ে পালিয়ে এসেছিলেন। কিন্তু পরে তাকে পুনরায় গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাকে ২০১৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রে হস্তান্তর করা হয়েছিল।

এল চাপো ‘সিনালোয়া কার্টেল গ্রুপ’র সাবেক প্রধান নেতা। ‍তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মাদকের সবচেয়ে বড় সরবরাহকারী ছিলেন। 

advertisement