advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বিশ্বের সবচেয়ে সেরা কে এই সুন্দরী?

অনলাইন ডেস্ক
১৮ অক্টোবর ২০১৯ ১২:৪৫ | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০১৯ ২০:৩৩
মার্কিন সুপার মডেল বেলা হাদিদ। ছবি : শি মিডিয়া
advertisement

‘মিস ওয়ার্ল্ড’ কিংবা ‘মিস ইউনিভার্স’- বিশ্বের এই দুটি প্রতিযোগিতায় মূলত প্রতি বছর সেরা সুন্দরীকে খুঁজে বের করা হয়। কিন্তু এই মুহূর্তে সেসব প্রতিযোগিতাকে ছাপিয়ে বিশ্বের সবচেয়ে সেরা সুন্দরী নারীর তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন ২৩ বছর বয়সী মার্কিন তরুণী বেলা হাদিদ।

গণিতের হিসাব-নিকাশ অনুযায়ী, এই মুহূর্তে বিশ্বের সবচেয়ে সেরা সুন্দরী তিনিই। প্রাচীন সভ্যতায় সৌন্দর্যের পরিমাপ অনুযায়ী (গোল্ডেন রেশিও অব বিউটি পাই স্ট্যান্ডার্ড) বেলাই লুফে নিয়েছেন সেরা মুকুটটি। ইউরোপীয় রেঁনেসার যুগে শিল্পী ও স্থপতিরা সৌন্দর্যের সেরা একক নির্বাচন করতো গোল্ডেন রেশিও দিয়ে। এই পরিমাপে সবচেয়ে বেশি ৯৪ দশমিক ৩৫ শতাংশ নম্বর পেয়েছেন মার্কিন এই সুপার মডেল।

বিশেষজ্ঞরা মূলত তারকাদের মুখসহ বিভিন্ন অঙ্গের মাপ নিয়ে এই ফলাফল ঘোষণা করেছেন। তার প্রায় সব অঙ্গ নিখুঁত অবস্থানে আছে। আর এজন্য গড় পরিমাপ হয়েছে ৯৪ দশমিক ৩৫ শতাংশ।

কে এই বেলা হাদিদ?

বেলা হাদিদ, যুক্তরাষ্ট্রের সুপার মডেল। তার পুরো নাম ইসাবেলা খায়ের হাদিদ। তিনি ১৯৯৬ সালের ৯ অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্রের লস আঞ্জেলেসে জন্ম গ্রহণ করেন। বর্তমানে বসবাস করেন নিউইয়র্কে।

বেলা হাদিদ ফিলিস্তিন-ডাচ বংশোদ্ভূত। তার বাবা মোহাম্মদ আনোয়ার হাদিদ ফিলিস্তিন বংশোদ্ভূত জর্ডানের নাগরিক। তিনি পেশায় একজন রিয়েল ইস্টেট ব্যবসায়ী। তার মায়ের নাম ইয়োলান্ডা। তিনি ডাচ (নেদারল্যান্ডস) বংশোদ্ভূত।

বেলা হাদিদের আরও কয়েকজন ভাই-বোন রয়েছে। তাদের মধ্যে আপন এক বোন ও এক ভাই রয়েছে। বেলার আপন বড় বোনের নাম গিগি। আর ছোট ভাইয়ের নাম আনোয়ার।

বেলা হাদিদের মা তার বাবাকে বিয়ে করার আগে ২০১১ সালে আমেরিকার মিউজিক প্রডিউসার ডেভিড ফসটারকে বিয়ে করেছিলেন। সেই সংসার থেকে বেলার রয়েছে আরও ৫ বোন।

বিশ্বের সবচেয়ে সেরা সুন্দরী প্রতিযোগিতার এই জরিপে দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন পপ গায়িকা ডিভা বিয়ন্সে। তার চেহারা ৯২ দশমিক ৪৪ শতাংশ নিখুঁত। তৃতীয়  অবস্থানে আছেন অভিনেত্রী অ্যাম্বার হার্ড। তার স্কোর ৯১ দশমিক ৮৫ শতাংশ। আর ৯১ দশমিক ৮১শতাংশ নম্বর নিয়ে পপ তারকা অ্যারিয়ানা গ্র্যান্ডে।

লন্ডনের প্রসিদ্ধ ফেসিয়াল কসমেটিকস সার্জন জুলিয়ান ডি সিলভা এই গবেষণাটি পরিচালনা করেছেন। তিনি বলেন, ‘বেলা তার নিখুঁত মুখের জন্যে সবার চেয়ে এগিয়ে। সবচেয়ে নিখুঁত চোখ স্কারলেট জোহানসনের।  শারীরিক গঠনে বিয়ন্সে অনেক এগিয়ে থাকলেও কপাল ও ঠোঁটের কারণে পিছিয়ে গেছেন। সার্বিকভাবে সবার চেয়ে এগিয়ে আছেন বেলা।‘

advertisement