advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দুই চ্যাম্পিয়নের লড়াই

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৯ অক্টোবর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৯ অক্টোবর ২০১৯ ০১:২৪
advertisement

শেখ কামাল ক্লাব কাপ টুর্নামেন্টের প্রথম দুই আসরে দুই চ্যাম্পিয়ন তারা। ২০১৫ সালে টুর্নামেন্টের যাত্রা শুরু। ওই আসরে চ্যাম্পিয়ন হয় চট্টগ্রাম আবাহনী। ২০১৭ সালে দ্বিতীয় আসরে চ্যাম্পিয়ন মালদ্বীপের ট্রাস্ট অ্যান্ড কেয়ার ফুটবল ক্লাব সংক্ষেপে টিসি স্পোর্টস ক্লাব। আজ টুর্নামেন্টের তৃতীয় আসর শুরু হতে যাচ্ছে। উদ্বোধনী দিনেই মাঠে নামবে গত দুই আসরের চ্যাম্পিয়ন দুই দল চট্টগ্রাম আবাহনী এবং টিসি স্পোর্টস। চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হবে হেভিওয়েট ম্যাচটি।

চট্টগ্রাম আবাহনী শুধু টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের সেরা ক্লাবই নয়; শেখ কামাল টুর্নামেন্টের আয়োজকও। আসরটি সামনে রেখে চ্যাম্পিয়ন দল গড়েছে তারা। জাতীয় দলের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া চট্টগ্রামের প্রাণভোমরা। এ ছাড়া জাতীয় দলে খেলা রিয়াদুল হাসান রাফি, রহমত মিয়া, আরিফুর রহমান, ইয়াসিন আরাফাতরাও রয়েছেন দলটিতে। এ ছাড়া অভিজ্ঞ গোলরক্ষক মাজহারুল ইসলাম হিমেল, গোলরক্ষক নাঈম ইসলামরা আছেন। তরুণ মান্নাফ রাব্বি, মনির আলমরাও খেলছেন। চট্টগ্রাম আবাহনীর মাস্টার মাইন্ড অর্থাৎ কোচের ভূমিকায় রয়েছেন দেশসেরা মারুফুল হক।

গতবার সেমিফাইনালে থামে চট্টগ্রাম আবাহনীর দৌড়। কোরিয়ান ক্লাব পোচেন এফসির কাছে সেমিফাইনালে ২-১ গোলে হেরে যায় বন্দরনগরীর দল। এবার আর ভুল করতে রাজি নয় দলটি। চ্যাম্পিয়নশিপে চোখ দলটির। গতকাল চট্টগ্রাম থেকে মাজহারুল ইসলাম হিমেল বলেন, ‘চট্টগ্রাম আবাহনী এবার শিরোপার জন্য দল গড়েছে। আমরা সবাই প্রস্তুত আছি দলকে ভালো কিছু এনে দিতে। টুর্নামেন্টে একবার শিরোপা জেতার রেকর্ড আছে দলটির। এবারও শিরোপা জিততে চাই। মারুফ ভাই (মারুফুল ইসলাম) আমাদের সেভাবেই প্রস্তুত করছেন। টিসি স্পোর্টস নিঃসন্দেহে ভালো দল। চ্যাম্পিয়ন দল। তবে আমরা কাল (আজ) জয়ের জন্যই মাঠে নামব।’

গতবার ব্রাদার্সের জার্সিতে আলো ছড়িয়েছেন মান্নাফ রাব্বি। এবার চট্টগ্রাম আবাহনীর জার্সি গায়ে দেখা যাবে তাকে। টিসি স্পোর্টসের বিপক্ষে ম্যাচ সামনে রেখে রাব্বি বলেন, ‘আমরা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য খেলছি। শিরোপা জিতে টুর্নামেন্ট শেষ করতে চাই। আমাদের দলটি বেশ গোছানো। তরুণদের পাশাপাশি অভিজ্ঞ খেলোয়াড় আছে। ঘরের মাঠ, ঘরের দর্শক-সমর্থকদের সামনে খেলব আমরা। এটা বাড়তি সুবিধা আমাদের জন্য।’ নিজের জায়গা নিয়ে চিন্তিত তরুণ ডিফেন্ডার মনির আলম। ইয়াসিন, রহমতরা থাকায় সেরা একাদশে সুযোগ পাওয়া নিয়ে কিছুটা সংশয়ে। টিসি স্পোর্টসের বিপক্ষে ম্যাচ সামনে রেখে মনির বলেন, ‘আমি জানি না শেষ পর্যন্ত একাদশে থাকব কিনা। তবে সুযোগ পেলে অবশ্যই নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা থাকবে। টিসি স্পোর্টস ভালো দল। আমরাও কারও চেয়ে পিছিয়ে নেই।’

advertisement