advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় স্কুলছাত্রীকে রাস্তায় ফেলে মারধর

নিজস্ব প্রতিবেদক,রংপুর
১৯ অক্টোবর ২০১৯ ২১:৪৬ | আপডেট: ১৯ অক্টোবর ২০১৯ ২১:৪৬
প্রতীকী ছবি
advertisement

রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলায় এক যুবকের প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় স্কুলছাত্রীকে রাস্তায় ফেলে নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। আজ শনিবার সকালে উপজেলা সদরে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে খাদেমুল ইসলাম (২১) নামের এক যুবককে স্থানীয় লোকজন আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। এ ঘটনায় মেয়ের বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী তারাগঞ্জ সদরের একটি উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণিতে পড়ে। স্কুলে যাতায়াতের পথে কিশোরগঞ্জ উপজেলার কাটগারী গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে খাদেমুল ইসলাম তাকে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করত এবং প্রেমের প্রস্তাব দিত। বিষয়টি ওই ছাত্রী তার পরিবারকে জানায়। ছাত্রীর বাবা গত ২০ সেপ্টেম্বর ঘটনাটি খাদেমুলের বাবাকে জানিয়ে ছেলেকে শাসন করতে বলেন। এতে খাদেমুল আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠেন।

বাবার কাছে নালিশ দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে খাদেমুল। আজ শনিবার সকাল ৯টার দিকে বাড়ি থেকে হেঁটে ওই ছাত্রী স্কুলে যাচ্ছিল। কুর্শা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যানের বাড়ির সামনে উপজেলা পরিষদ-তারাগঞ্জ বাজার সড়কে খাদেমুল মেয়েটির পথরোধ করেন। কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে ওই ছাত্রীকে রাস্তায় ফেলে বেধড়ক মারধর করেন। এ দৃশ্য দেখে স্থানীয় লোকজন ছুটে এসে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠিয়ে দেন। তারা খাদেমুলকে আটক করে তারাগঞ্জ থানায় সোপর্দ করেন।

তারাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিন্নাত আলী জানান, এ ঘটনায় মেয়ের বাবা একটি মামলা করেছেন। খাদেমুলকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

advertisement