advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

স্বামীর বাড়িতে স্ত্রীর অনশন : সংসার ফিরে পাওয়ার দাবি

চিরিরবন্দর প্রতিনিধি
২০ অক্টোবর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২০ অক্টোবর ২০১৯ ০০:২১
advertisement

দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে রুবিনা খাতুন (২৫) সংসার ফিরে পাওয়ার দাবিতে স্বামীর বাড়িতে অনশন শুরু করেছে। গতকাল শনিবার সকালে তিনি এ অনশন শুরু করেন। রুবিনা চিরিরবন্দর উপজেলা সদরের মাঝাপাড়া গ্রামের বাদশা হোসেনের মেয়ে। তাদের আরাবী নামের ৪ বছরের একটি ছেলেসন্তান রয়েছে। 

অভিযুক্ত স্বামী আলাউদ্দিন ভূঁইয়া রনি (২৭) চিরিরবন্দর উপজেলা সদর কোটপাড়ার মৃত রুহুল আমিনের ছেলে। সে পেশায় একজন কসমেটিকস ব্যবসায়ী।

স্ত্রী রুবিনা খাতুন জানান, আলাউদ্দিনের সঙ্গে তার দীর্ঘ ৯ বছরের সংসার। সংসার চলাকালীন কিছুদিন আগে সে আমাকে ঘুরতে নিয়ে যায়। এবং সেখানে সে বলে, তোমাকে আমি ডিভোর্স দিয়েছি। তুমি এখন আর আমার স্ত্রী নয়। এখন তুমি তোমার বাবার বাড়ি চলে যাও। পরে সে আমাকে আমার অজান্তে ডিভোর্স দিয়েছে বলে দাবি করে সবাইকে জানিয়ে দেয়। তখন আমি আমার ছেলেকে নিয়ে বাবার বাড়ি চলে যাই। ভেবেছিলাম কিছুদিন একা থাকলে সব ঠিক হয়ে যাবে। এর কিছুদিন পরই সে তার নিজের ভুল বুঝতে পেরে আমাকে মুঠোফোনে যোগাযোগ করে দেখা করতে বললে আমিও তার সঙ্গে আবার দেখা করি।

কিন্তু তার মা তহমিনা বেগম, বড় ভাই আল আমিন ও বড় বোন লাভলীর কূটবুদ্ধিতে সে তার বাড়িতে আমাকে নিতে নারাজ। তাই আমি আমার ছেলের ভবিষতের কথা চিন্তা করে আমার সাজানো সংসার রক্ষার জন্য নিজের ঘরে ফিরে এসেছি। কিন্তু তার পরিবারের লোকজন আমাকে মেনে নিতে রাজি না হওয়ায় আমি চিরিরবন্দর থানায় একটি অভিযোগ করি। এ বিষয়ে অভিযুক্ত স্বামী রনির সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে চিরিরবন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ পিপিএম মাহবুবুর রহমান সরকার জানান, রুবিনা তার সংসার ফিরে পাক সেটি আমরা সবাই চাই।

advertisement