advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

স্টেশনে ট্রেন রেখে শ্বশুরবাড়িতে গেলেন গার্ড!

চট্টগ্রাম ব্যুরো
৩১ অক্টোবর ২০১৯ ১৩:৫২ | আপডেট: ৩১ অক্টোবর ২০১৯ ১৯:১২
ছবি : সংগৃহীত
advertisement

স্টেশন থেকে পাঁচ কিলোমিটার দূরেই ছিল শ্বশুরবাড়ি। তাই ট্রেন হাটহাজারী স্টেশনে থামার পর কাউকে কিছু না বলে সোজা চলে যান সেখানে। এদিকে হাটহাজারী ছেড়ে ফতেয়াবাদ জংশনে চলে আসে ট্রেনটি। এ সময় খোঁজ পড়ে যায় মো. জুনায়েদ নামের ওই গার্ডের। এক ঘণ্টা পর তিনি স্টেশনে পৌঁছলে দেরিতে ছাড়ে ওই ট্রেন। 

এ ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার দায়ে ওই গার্ডকে প্রত্যাহার করেছে চট্টগ্রাম রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। আজ বৃহস্পতিবার সকালে তাকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

রেলের চট্টগ্রাম বিভাগীয় ব্যবস্থাপক মো. বোরহান উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, গত বুধবার চট্টগ্রাম-নাজিরহাট কমিউটার ডেমু-৪ ট্রেনে এ ঘটনা ঘটে। ওই ট্রেনের একমাত্র গার্ড ছিলেন মো. জুনায়েদ।

সূত্র জানায়, ওই ট্রেনের চালক (লোকো মাস্টার) ছিলেন মো. মহিউদ্দিন। গত ২৯ অক্টোবর (মঙ্গলবার) নাজিরহাট থেকে ঠিক সময়ে ছেড়ে আসে ট্রেন। হাটহাজারী স্টেশনে আসলে গার্ড জুনায়েদ কাউকে না বলে পাঁচ কিলোমিটার দূরে শ্বশুরবাড়িতে চলে যান।

এদিকে ট্রেন হাটহাজারী ছেড়ে ফতেয়াবাদ জংশনে এসে পৌঁছায়। কিন্তু ফতেয়াবাদ হতে লাইন ক্লিয়ার পাওয়ার পর গার্ড সিগন্যাল না পাওয়ায় লোকো মাস্টার মহিউদ্দিন আর ট্রেন ছাড়েননি। পরে তিনি খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন ট্রেনে গার্ড নেই। তখন তিনি স্টেশন মাস্টার আরিফের মাধ্যমে পাহাড়তলী কন্ট্রোলকে বিষয়টি অবহিত করেন।

কন্ট্রোলার ও লোকো মাস্টার ওই গার্ড জুনায়েদকে দ্রুত ট্রেনে যোগ দিতে বলেন। পরে জুনায়েদ হাটহাজারী থেকে সিএনজি অটোরিকশা নিয়ে ফতেয়াবাদ আসলে এক ঘণ্টা পর ওই ট্রেন ছাড়ে।

এ ব্যাপারে রেলওয়ের পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় ব্যবস্থাপক বোরহান উদ্দিন বলেন, ওই ট্রেনের গার্ডকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

advertisement