advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement

সব খবর

advertisement

‘অন্তরঙ্গ’ ছবি ফাঁস, যা বললেন ক্ষুব্ধ তারকারা

বিনোদন প্রতিবেদক
৫ নভেম্বর ২০১৯ ১৭:২৯ | আপডেট: ৫ নভেম্বর ২০১৯ ১৭:২৯
অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনা (বাঁ থেকে), নির্মাতা অমিতাভ রেজা, কণ্ঠশিল্পী আঁখি আলমগীর, অভিনেত্রী মাসুমা রহমান নাবিলা। ফাইল ছবি
advertisement

শোবিজ পাড়ায় কিংবা নেট দুনিয়ায় মডেল-অভিনেত্রী মিথিলা ও নির্মাতা ইফতেখার আহমেদ ফাহমির ছবিগুলো এখন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠেছে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে বইছে সমালোচনার ঝড়। বলা যায়, মিথিলা-ফাহমির ‘অন্তরঙ্গ’ ছবিগুলো নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া এখন উত্তাল। শেয়ারের পাশাপাশি ছবিগুলোতে পড়ছে বাজে মন্তব্যও।

এই সময় অনেক তারকা দাঁড়িয়েছেন মিথিলা-ফাহমির পাশে। দিচ্ছেন নানা সচেতনতামূলক পোস্ট। নির্মাতা অমিতাভ রেজা বলেন, ‘যে দেশে ভালোবাসা খারাপ, হস্তমৈথুনে পুরুষত্ব। সে দেশে সাংবাদিকতা খুব স্বাভাবিক বিচারে এরকম হবে। বি স্ট্রং।’

কণ্ঠশিল্পী আঁখি আলমগীর তার ফেসবুকে লিখেছেন, ‘অন্যের কিছু (তা যতই খারাপ হোক) যখন আপনি শেয়ার করছেন তখন আপনিও খুব ভালো কিছু করছেন না।’

অভিনেত্রী রুনা খান লিখেছেন, ‘যে যে তার নিজের ওয়ালে অন্যের পার্সোনাল এবং নেগেটিভ নিউজ শেয়ার করবে আমি তাদের ব্লগ করবো।’

অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনা লিখেছেন, ‘কারো ইনবক্স এর কথা বা তথ্য, প্রচার করা । যে করেছে সে কোনো মানুষ হতে পারে না। তাকেও কোনো মেয়ে জন্ম দিয়েছে। অন্য মানুষের ছবি ভাইরাল করে তোর লাভ কোথায়? আমরা সোশাল মিডিয়া ইউজ করতে শিখিনি।’

আয়নাবাজি'খ্যাত অভিনেত্রী মাসুমা রহমান নাবিলা লিখেছেন, ‘বাংলাদেশে ফেসবুক পেইড করে ফেলা উচিৎ। নূন্যতম ১০০০ টাকা দিতে হলে অনেকেই ঝড়ে যাবে এখান থেকে। আমাদের দরকার নেই ফ্রি ফলোয়ারদের। আমাদের দরকার নিরাপদ ও সুস্থ সোশ্যাল মিডিয়া।’

‘মিস আয়ারল্যান্ড’খ্যাত মাকসুদা আক্তার প্রিয়তি লিখেছেন, ‘ভালোবেসে প্রেমিককে চুমু খেয়েছি, প্রেমিকের বুকে মাথা রেখে প্রাণ জুড়িয়েছি, তাতে কার বাপের কি, মায়ের কি বা চৌদ্দগুষ্ঠির কি? কেউ পাবলিক ফিগার বা জনপ্রিয় হলে তার ব্যক্তিগত মুহূর্তগুলো বা ভালোবাসার অধিকার কি উধাও হয়ে যেতে হবে? উনাকে আপনাদের কাস্টোমাইজড অনুযায়ী ফাঙ্কসোনাল অমানব রোবট হয়ে যেতে হবে? যেন আপনারা সবাই ধোয়া তুলশী পাতা! আদরে, ভালোবাসায় আবিষ্ঠ থাকতে সবাই চায়, সবাই ভালোবাসে। বোঝা গেল? বুঝলে বুঝ পাতা, আর না বুঝলে?’

অভিনেতা পাভেল ইসলাম লিখেছেন, ‘ধরুণ মিথিলা নামে আপনার একটা বোন আছে, যে একজন শিক্ষিকা, যার একটি ছোট কন্যা সন্তান আছে। সম্প্রতি তার ডিভোর্স হয়েছে। পরবর্তীকালে তার কারও সাথে একটি সম্পর্ক হয়েছে, হোক তা বৈধ বা অবৈধ; আপনি কি পারতেন আপনার বোনের সেইসব গোপন ছবি ভাইরাল করতে? এগুলো করে না আপনার সম্মান বাড়ে, না সমাজের, না দেশের! কী লাভ বলেন! আপনি আজ মরলে কাল দুইদিন! মাথা মোটা হইয়েন না।’

তাদের পাশাপাশি এমন অনেক তারকারাই মিথিলা ও ফাহমিকে নিয়ে লিখছেন। অনেক তারকারা আবার মিথিলা-ফাহমির সংবাদ প্রকাশ করায় ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার একটি ফেসবুক গ্রুপ থেকে মিথিলা-ফাহমির বেশ কিছু ‘অন্তরঙ্গ’ ছবি পোস্ট করা হয়। এরপর সেখান থেকে ছবিগুলো দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।

এর আগে, বিভিন্ন গণমাধ্যমে কলকাতার নির্মাতা সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে মিথিলার প্রেমের গুঞ্জনের খবর প্রকাশ হয়। খুব শিগগিরই সৃজিত-মিথিলার বিয়ে হবে বলেও খবর প্রকাশ হয়েছে দুই বাংলার গণমাধ্যমে। কিছুদিন আগে, তাদের দেখা গেছে নেপালের নাগরকোটে অবকাশ যাপনে।

advertisement