advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement

সব খবর

advertisement

আইএসআই’র নারী এজেন্টকে তথ্য পাচারের অভিযোগে ২ ভারতীয় সেনা গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক
৭ নভেম্বর ২০১৯ ১৮:০৬ | আপডেট: ৭ নভেম্বর ২০১৯ ১৮:০৬
ভারতীয় সেনা। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা ইন্টার সার্ভিসেস ইন্টিলিজেন্সের (আইএসআই) এক নারী এজেন্টকে গোপন তথ্য পাচারের অভিযোগে দুই ভারতীয় সেনাকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির পুলিশ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, গত মঙ্গলবার রাজস্থানের যোধপুর রেল স্টেশন থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার হওয়া দুই ভারতীয় সেনা হলেন- ল্যান্স নায়েক রবি ভার্মা ও বিচিত্র ভোরা। রবি ভার্মার বাড়ি মধ্য প্রদেশ ও বিচিত্র ভোরার বাড়ি আসামে। তারা দু’জনই পোখরানে কর্মরত ছিলেন।

প্রথমে আটকের পর এ দুই ভারতীয় সেনাকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গ্রেপ্তার দেখিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা সিবিআই তাদের হেফাজতে নেয়। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে অভিযোগ- তারা আইএসআই’র এক নারী এজেন্টকে ভারতীয় সেনাবাহিনীর বহু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাচার করতেন। গ্রেপ্তার হওয়া সেনারা ভারতের অস্ত্রভাণ্ডারের গোপন তথ্যও আইএসআই এজেন্টকে পাঠাত বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

রাজস্থান পুলিশের এডিজি উমেশ মিশ্র বলেন, ‘দুই জওয়ান হানিট্র্যাপের কবলে পড়েছিল। দুজনকে লাগাতার জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। সেনাবাহিনীর আরও কী কী তথ্য তারা আইএসআইয়ের হাতে তুলে দিয়েছেন, তা জানারও চেষ্টা চলছে।’

সিবিআই মনে করছেন, রাজস্থানে মোট কত সেনা জওয়ান কর্মরত রয়েছেন, সেই তথ্য প্রাথমিকভাবে ওই নারী এজেন্টকে জানিয়েছিলেন গ্রেপ্তার হওয়া এ দুই সেনা। তারা ভারতীয় সেনাবাহিনীর অস্ত্রভাণ্ডার ও পরিকাঠামো সংক্রান্ত তথ্যও পাচার করেছিলেন বলে তদন্তকারীরা মনে করছেন। তারা মনে করছেন, অভিযুক্ত সেনারা কমপক্ষে দুই বছর ধরে আইএসআই’র ওই নারী এজেন্টের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল। ওই নারীর সঙ্গে তারা হোয়াটসঅ্যাপ ও ফেসবুকের মাধ্যমে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতেন।

আইএসআই’র এজেন্ট ওই নারী নিজেকে পাঞ্জাবি বলে পরিচয় দিয়েছিলেন। পাকিস্তানের একটি নম্বর থেকে এ দুই সেনার কাছে তিনি ফোন করতেন।  অভিযুক্তদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা জমা হলে ভারতীয় গোয়েন্দাদের নজরে আসে।  

advertisement