advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

এতবড় সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি লিটন!

ক্রীড়া প্রতিবেদক,রাজকোট থেকে
৭ নভেম্বর ২০১৯ ২২:১৪ | আপডেট: ৭ নভেম্বর ২০১৯ ২২:১৪
লিটন দাস
advertisement

দিল্লিতে সিরিজের প্রথম ম্যাচ জিতে যাওয়াতে কোনো ধরনের চাপ ছিল না টাইগারদের সামনে। সিরিজ জয়ের স্বপ্ন নিয়ে আত্মবিশ্বাসের তুঙ্গে থেকে মাঠে নামেন লাল সবুজের প্রতিনিধিরা। তবে দিল্লিতে প্রথম ম্যাচের মতো টস ভাগ্য সহায় হয়নি রাজকোটের সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে। শুভ সূচনা করেও জয়ের লক্ষ্য দিতে পারেনি বাংলাদেশ।

শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ওভার শেষে ছয় উইকেট হারিয়ে ভারতকে ১৫৪ রানের লক্ষ্য দেয় টাইগাররা। সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি লিটন দাস।

ভারতের দেওয়া এই সুযোগগুলো কাজে লাগালে গল্পটা হতো ভিন্ন। প্রথম ম্যাচে ভারতের হারের অন্যতম কারণ ছিল ফিল্ডিং মিস। আজও এর ব্যতিক্রম মনে হয়নি। পান্থ-রোহিতকে ছিলেন না ‘মিস ফিল্ডারদের’ তালিকায়। এক লিটনই সুযোগ পেয়েছিলেন দুই দুইবার। কিন্তু ২৯ রানের বেশি করতে পারেননি এই ডানহাতি ওপেনার। ১৭ রানে জীবন পাওয়ার পর ২৯ রানে সাজঘরে ফেরেন স্টাম্পিংয়ের শিকার হয়ে। ২১ বলে চার চারের মারে তিনি এই রান করেন। 

অথচ প্রথম জীবন পেয়েছিলেন স্টাম্পিং করতে গিয়ে পান্থর সহজ ভুলে। এরপর ওয়াশিংটন সুন্দরের বলে ক্যাচ তুলে দিলেও ধরতে পারেননি ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা। দ্বিতীয়বার আর ভুল করেননি পান্থ। রান আউট করে সাজঘরে পাঠিয়ে দেন ডানহাতি এই ওপেনারকে। 

লিটন দাস প্রথম্য ম্যাচেও ব্যর্থ ছিলেন। এই ম্যাচে মাত্র সাত রান করে সাজঘরে ফেরেন তিনি। রাজকোটের এই মাঠে গড় রান ১৭০/১৮০। অর্থাৎ এই রান হলে যেকোন দলের পক্ষে জেতা সম্ভব। কিন্তু মিডল অর্ডার ও লেয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় বাংলাদেশ দুর্দান্ত শুরু করেও ১৬০ রানের ঘর পেরোতে পারেনি। অথচ পাওয়ার প্লেতে ৫৪ রান এসেছিল।

advertisement