advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘বুলবুল’ মোকাবিলায় প্রস্তুত কোস্টগার্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক
৯ নভেম্বর ২০১৯ ১২:৩৯ | আপডেট: ৯ নভেম্বর ২০১৯ ১২:৩৯
পুরোনো ছবি
advertisement

প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ আঘাত হানার পর উদ্ধার তৎপরতাসহ যেকোনো ধরনের সহায়তার জন্য প্রস্তুত রয়েছে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড। আজ শনিবার কোস্ট গার্ড সদর দপ্তরের মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট এম হায়াত ইবনে সিদ্দিক এ কথা জানান।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’-এর কারণে মোংলা ও পায়রা বন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ৯টি জেলায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সাত ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাস হওয়ার আশঙ্কাও রয়েছে। এতে যাবতীয় দুর্যোগ এড়াতে আগে থেকেই সতর্ক অবস্থায় রয়েছে কোস্টগার্ড।

জরুরি সহায়তায় কোস্টগার্ড কন্ট্রোল সেলের মোবাইল নম্বরগুলোতে ফোন করে তাৎক্ষণিক সহায়তা পাওয়া যাবে। নম্বরগুলো হলো : বরিশাল বিভাগ-০১৭৬৬৬৯০৬২১, খুলনা বিভাগ-০১৭৬৬৬৯০৪০১, চট্টগ্রাম বিভাগ-০১৭৬৬৬৯০১৭১ এবং অতিরিক্ত -০১৭৬৬৬৯০০৪৯।

উপকূলীয় জেলা ভোলা, বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরগুলো ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে। এছাড়া চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত নামিয়ে তার পরিবর্তে ৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

তবে উপকূলীয় জেলা চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরগুলো ৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে।

অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ কেন্দ্রের ৭৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ১৩০ কিলোমিটার যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ১৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত বাড়ছে। ফলে ঝড়ের কেন্দ্রে সাগর উত্তাল রয়েছে।

advertisement