advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে বাংলাদেশের তুলনা, যা বললেন কোহলি

ক্রীড়া প্রতিবেদক,নাগপুর থেকে
১৩ নভেম্বর ২০১৯ ১৬:৩২ | আপডেট: ১৩ নভেম্বর ২০১৯ ২১:২০
পুরোনো ছবি
advertisement

২০১৩ সাল থেকে ঘরের মাঠে টেস্ট খেলে ২৫টিতে জিতেছে ভারত, আর হেরেছে মাত্র একটি ম্যাচে। তাও আবার ২০১৭ সালে।

গত মাসেই দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে ঘরের মাঠে টানা ১১টি সিরিজ জয়ের রেকর্ড গড়েছে কোহলিরা। ছোট এই পরিসংখ্যানেই বোঝা যায় তারা টেস্ট ক্রিকেটে ঘরের মাঠে কতটা শক্তিশালী।

এবার নিজেদের মাটিতে প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ। সেই তুলনায় টাইগাররা অনেক খর্ব শক্তির দল। তবুও হালকাভাবে নিচ্ছেন না ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

এমন বার্তা দিয়েই আগামীকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্ট খেলতে মাঠে নামবে ভারত।  

এই টেস্ট ম্যাচ নিয়ে কথা বলতে এসে কোহলি জানান, বাংলাদেশকে হালকাভাবে নেওয়ার কোনো মানে নেই।

কিছুদিন আগেই ঘরের মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকাকে তুলোধুনো করেছেন কোহলিরা। দক্ষিণ আফ্রিকার চেয়েও বাংলাদেশ বেশি ফেভারিট কিনা এমন প্রশ্নে কোহলি এই মন্তব্য করেন।

আজ বুধবার দুপুরে ভারতের মধ্যপ্রদেশে অবস্থিত হলকার স্টেডিয়ামে কোহলি বলেন, ‘বাংলাদেশ অনেক দক্ষ দল। তারা জানে এ পরিবেশে কীভাবে খেলতে হয়। দুদেশেরই প্রায় একই কন্ডিশন। তাদের দলে অনেক দক্ষ খেলোয়াড় আছে। আমরা তাদেরকে হালকাভাবে নিচ্ছি না। তবে নিজের দেশ হিসেবে আমি আমার দিক  থেকে বলব আমরাও অনেক শক্তিশালী।‘

অধিনায়ক কোহলির মতো একই কথা বলেছিলেন অজিঙ্কা রাহানেও। তিনি বলেন, ‘রিয়াদ মুশফিকরা অনেক ভালো দল। তারা আমাদের জন্য বহুবার কষ্টের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল।  তারা দল হিসেবে খুবই ভালো খেলে। তাদের হালকাভাবে নেওয়ার কোনো প্রশ্নই আসে না।’

একদিনের ক্রিকেট কিংবা টি-টোয়েন্টিতে সাফল্য পেলেও বাংলাদেশ টেস্ট ক্রিকেট সেভাবে রপ্ত করতে পারেনি। এখন পর্যন্ত ১১৫ টেস্ট খেলে টাইগারদের জয় এসেছে মাত্র ১৩ ম্যাচে, ড্র করেছে ১৬টিতে। আর বাকি ৮৬ ম্যাচে হেরেছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

ভারত হালকাভাবে নিলেও তাদের সমীহ করছে বাংলাদেশ। ভারতের শক্তিমত্তা আর নিজেদের দুর্বলতা জেনেই হয়তো লাল-সবুজের জার্সি গায়ে মাত্র পাঁচ টেস্ট খেলা মোহাম্মদ মিঠুন সমীহ করছেন বিরাট কোহলিদের। মিঠুন বলেন, ‘ভারতের মাটিতে কোনো দলই সুবিধা করতে পারেনি। আমরা চেষ্টা করছি কীভাবে এখানে ভালো ক্রিকেটটা খেলতে পারি। তবে জয়ের উদ্দেশেই মাঠে নামবে বাংলাদেশ। সে ক্ষেত্রে লক্ষ্য থাকবে প্রতিটি সেশনে ভালো করা।’

advertisement