advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

টেকসই উন্নয়নে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্ব নিশ্চিত করতে হবে -ঢাকা স্কুলের সেমিনারে বক্তারা

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৭ নভেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৭ নভেম্বর ২০১৯ ০০:০৫
advertisement

টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগ নিশ্চিত করতে হবে। অর্থনৈতিক উন্নয়ন কর্মকা-ে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্ব (পিপিপি) অপরিহার্য। পিপিপি ছাড়া এসডিজির সব অভীষ্ট ও লক্ষ্য অর্জন করা অসম্ভব। তাই পিপিপি বাস্তবায়নে যেসব বাধা আছে তা দূর করার উদ্যোগ নীতিনির্ধারণী মহল থেকে নিতে হবে। গতকাল শনিবার ঢাকা স্কুল অব ইকোনমিক্স (ডিএসসিই) আয়োজিত সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন।

‘পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপ ফর এন্ট্রাপ্রেনিউরিয়াল ভেঞ্চার : পারসপেক্টিভ অব বাংলাদেশ’ শীর্ষক ওই সেমিনারের ঢাকা স্কুলের গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান অর্থনীতিবিদ ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমেদ, উদ্যোক্তা অর্থনীতি কোর্সের প্রধান সমন্বয়ক অধ্যাপক ড. মুহম্মদ মাহবুব আলী, সহকারী অধ্যাপক রেহানা পারভীন, সারাহ তাসনীম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. শবনম জাহান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের পিপিপি অথরিটির প্রধান নির্বাহী ও সচিব মুহাম্মদ আলকামা সিদ্দিকী।

ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমেদ বলেন, সুষম উন্নয়নের জন্য পিপিপি ভালো একটি উদ্যোগ। এর জন্য বেসরকারি খাতকে অন্তর্ভুক্ত করার সুযোগ বৃদ্ধি করতে হবে। পিপিপিতে সফল হতে হলে ব্যবসা করার সহজ পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে এবং ওয়ানস্টপ সার্ভিস চালু করতে হবে। ঢাকা স্কুলে উদ্যোক্তা উন্নয়নে পিপিপির আওতায় ‘ইকোনমিক ইনকিবিউটর’ প্রতিষ্ঠা করা হবে।

অধ্যাপক ড. মুহম্মদ মাহবুব আলী বলেন, অর্থনৈতিক উন্নয়নে পিপিপি স্বার্থক মডেল হতে পারে।

advertisement