advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ওর সহযোগিতা আর উৎসাহ না পেলে হয়তো...

বিনোদন প্রতিবেদক
১৭ নভেম্বর ২০১৯ ১২:১৬ | আপডেট: ১৭ নভেম্বর ২০১৯ ১৩:০৪
সংগীতশিল্পী সালমা। ফাইল ছবি
advertisement

গানের ভুবনে ব্যস্ত সময় পার করছেন সংগীতশিল্পী সালমা। এরই মধ্যে তিনি কণ্ঠ দিয়েছেন বেশ কিছু নতুন গান। পাশাপাশি নিজেকে যুক্ত করেছেন সামাজিক উন্নয়ণমূখী কাজের সঙ্গেও। গান ও সমসাময়িক ব্যস্ততা নিয়ে দৈনিক আমাদের সময় অনলাইন-এর মুখোমুখি হয়েছেন সালমা।

গান-বাজনার খবর বলুন...

নিজের মতো করে কাজ করে যাচ্ছি। কিছুদিন আগে, একটি ফোক গানে কণ্ঠ দিলাম। এর সুর-সংগীত করেছে এম এ রহমান। এ ছাড়াও জিয়াউদ্দিন আলমের সুরে ও রেজওয়ানের সংগীতেও একটি গানে কন্ঠ দিয়েছি। সামনে গানটি মিউজিক ভিডিও আকারে প্রকাশ করা হবে। পাশাপাশি আরও কিছু নতুন গানে কণ্ঠ দেওয়ার কথা চলছে।

স্টেজ শোয়ের ব্যস্ততা কেমন?

আপাতত স্টেজ শো খুব একটা করছি না। কারণ আমার মেয়ে (সাফিয়া নূর) এখন অনেক ছোট। ওর বয়স এখনও মাত্র আড়াই মাস। তাই অনেক বেছে বেছে কাজ করতে হচ্ছে।

আপনার নতুন গানগুলো কি আপনার ইউটিউবেই প্রকাশ হবে?

শুধু আমার ইউটিউব চ্যানেল ‘সালমা মিউজিক’-এর জন্যই নতুন গান করছি না। বিভিন্ন ব্যানারের হয়েও গান করছি। তবে মাঝে কিছুটা বিরতিতে ছিলাম। ওই সময় আমার চ্যানেলের জন্য কয়েকটি গান কণ্ঠে তুলেছিলাম। ওই গানগুলো এবার মিউজক ভিডিও আকারে প্রকাশ করার ইচ্ছে আছে। আশা করি, চলতি বছর শেষে ও নতুন বছরের শুরুর দিকে গানগুলো প্রকাশ হবে।

‘সাফিয়া ফাউন্ডেশন ফর এডুকেশনাল ডেভেলপমেন্ট’ কার্যক্রম কেমন চলছে?

মানবিকতা ও মূল্যবোধের জায়গা থেকে আমরা এই ফাউন্ডেশন চালু করেছি। কিছুদিন আগে ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট এলাকার বড়দাস পাড়া এলাকার প্রাথমিক স্কুলে তিন শতাধিক শিশুর মাঝে আমরা শিক্ষা উপকরণ ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছি। এবার কুষ্টিয়ার স্কুলগুলোতে যাওয়ার ইচ্ছে আছে। মানবিক উন্নয়নে প্রধান এবং একমাত্র হাতিয়ার শিক্ষা। তাই আপাতত শিক্ষার প্রসারে কাজ করতে চাই।

আর কী কী সামাজিক কাজে অংশ নেওয়ার ইচ্ছে আছে?

সবে মাত্র তো মাত্র শুরু হয়েছে। শিক্ষার পাশাপাশি দেশের অসহায়, দুস্থ, গরীব মানুষের পাশে থাকবে এই ফাউন্ডেশন। এই শীতে শীতার্ত মানুষের পাশেও দাঁড়াতে চাই। শহরে থেকে আমরা অনেকেই আঁচ করতে পারি না, গ্রামের মানুষগুলো কত অসহায়। আমি সমাজের বৃত্তবানদের আহবান করবো, এই মানুষগুলোর পাশে দাঁড়াতে।

সবশেষে জানতে চাই, সংসার কেমন চলছে?

আল্লাহর রহমতে ও সবার দোয়ায় আমরা বেশ ভালো আছি। সাগর (স্বামী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ নূরে সাগর) আমাকে খুব বোঝে। আমার সব কাজে ও উৎসাহ দেয়। ওর সহযোগিতা আর উৎসাহ না পেলে হয়তো ‘সাফিয়া ফাউন্ডেশন ফর এডুকেশনাল ডেভেলপমেন্ট’ চালু করা সম্ভব হতো না।

advertisement