advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মালয়েশিয়ার সেগি ইউনিভার্সিটির সনদ পেলেন ৩০ শিক্ষার্থী

শাহাদাত হোসেন,মালয়েশিয়া
১৭ নভেম্বর ২০১৯ ১৮:১২ | আপডেট: ১৭ নভেম্বর ২০১৯ ১৮:১২
মালয়েশিয়ার সেগি ইউনিভার্সিটির ২১তম সমাপনীতে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে মালয়েশিয়ার সেগি ইউনিভার্সিটির ২১তম ও ৪র্থ গ্র্যাজুয়েশন সমাপনী সম্পন্ন হয়েছে। আর এ সমাপনী অনুষ্ঠানে ব্যাচেলর অব হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট ও ডিপ্লোমা ইন হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্টে শিক্ষা সম্পন্ন করা ৩০ জন বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকেও সনদ প্রদান করা হয়েছে।

গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ৭টায় কোটা দামানসারা ইউনিভার্সিটির মাল্টি পারপাস হল রুমে শুরু হওয়া সমাপনী অনুষ্ঠানটি চলে বেলা ১টা পর্যন্ত। সেগি ইউনিভার্সিটি ২১তম গ্র্যাজুয়েশন ও সেগি কলেজের ৪র্থ গ্র্যাজুয়েশন সমাপনীতে ৬৭০ জন শিক্ষার্থীদের সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়।

শিক্ষার্থীদের হাতে সনদপত্র হস্তান্তর করেন সেগি ইউনিভার্সিটির ভাইস ড. চ্যান্সেলর পেটরিক কি ও সেগি কলেজের প্রিন্সিপাল নূরমেন চিউ সু জিউন।

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা প্রতিনিয়তই দেশের মান উজ্জ্বল করে চলেছেন শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনের মধ্য দিয়ে। এশিয়ার অর্থনৈতিক সমৃদ্ধ মালয়েশিয়ার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে কাঙ্খিত শিক্ষা অর্জনের শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করছেন।

সনদ পাওয়া শিক্ষার্থী খন্দকার আবরার মোস্তাফা বলেন, ‌এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে মালয়েশিয়া হতে পারে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষার চমৎকার ও সাশ্রয়ী গন্তব্য। মানের দিক দিয়ে দেশটিতে উচ্চশিক্ষা এখনও এশিয়ার চীন, জাপান, সিঙ্গাপুর ও হংকংয়ের পর্যায়ে না গেলেও মালয়েশিয়া এ বিষয়ে বেশ দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। সর্বপরি একজন বাংলাদেশি হিসেবে আমি গর্বিত।

আরেক শিক্ষার্থী রিয়াজ চট্রগ্রামের সন্তান । তিনিও ব্যাচেলর অব হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্টে শিক্ষা সম্পন্ন করেছেন। সমাপনী অনুষ্ঠানে সনদপত্র হাতে পেয়ে বললেন, বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে মালয়েশিয়ার শিক্ষা ব্যবস্থা আরও একধাপ এগিয়ে। এখানে একধাপ এগিয়ে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরাও। পড়াশোনার পাশাপাশি অনেক দেশের শিক্ষার্থীর সঙ্গে পরিচয় হয়েছে।

advertisement