advertisement
International Standard University
advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

লিবিয়ায় বিমান হামলায় বাংলাদেশিসহ নিহত সাত

আমাদের সময় ডেস্ক
১৯ নভেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০১৯ ০১:১৪
advertisement

লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলির একটি বিস্কুট কারখানায় বিমান হামলায় বাংলাদেশিসহ অন্তত ৭ জন নিহত হয়েছেন। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম জানিয়েছে, এ ঘটনায় নিহতদের মধ্যে ৫ বাংলাদেশি রয়েছেন। তবে ত্রিপোলিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শেখ সিকান্দার আলী আমাদের সময়কে জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে তারা আবুল হাসান ওরফে বাবুলাল নামে এক বাংলাদেশিকে চিহ্নিত করেছেন। বাকি লাশগুলো অন্য দেশের নাগরিকদের।
বার্তা সংস্থা এপি ও রয়টার্সের খবরে বলা হয়, গতকাল সোমবার স্থানীয় সময় সকালে ত্রিপোলির ওয়াদি এল রাবি এলাকার ওই বিস্কুট কারখানায় দেশটির বিদ্রোহী জেনারেল খলিফা হাফতারের নেতৃত্বাধীন লিবিয়ান ন্যাশনাল আর্মি (এলএনএম) এই হামলা চালায়। নিহতদের নাম-পরিচয় এখনো জানা যায়নি। গত এপ্রিল থেকে লিবিয়ায় জাতিসংঘ সমর্থিত সরকারি বাহিনীর সঙ্গে খলিফা হাফতারের নেতৃত্বাধীন এলএনএমের সংঘর্ষ চলছে।
দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মালেক

মারসেত জানান, হামলায় নিহতদের মধ্যে ৫ বাংলাদেশি ও ২ লিবীয়। এ হামলায় আরও ৩৩ বিদেশি আহত হয়েছেন। তাদের অধিকাংশই বাংলাদেশ ও নাইজারের নাগরিক। জরুরি চিকিৎসার জন্য তাদের পাশ্ববর্তী হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।
রাষ্ট্রদূত শেখ সিকান্দার আলী জানান, সকালে ঘটনা জানার পর পরই দূতাবাসের একটি টিম স্থানীয় তাজুরা হাসপাতালে যায়, যেখানে লাশগুলো রাখা হয়েছিল। ওই লাশ দেখে আবুল হাসান নামে এক বাংলাদেশিকে শনাক্ত করা হয়েছে। তার বাড়ি রাজশাহীতে। ওই হাসপাতালে আরও ১৫ বাংলাদেশি আহত অবস্থায় ছিলেন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর ত্রিপোলির তিনটি হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য স্থানান্তর করেছে লিবীয় কর্তৃপক্ষ। দূতাবাস আহতদের চিকিৎসার ব্যাপারে নিয়মিত খোঁজখবর রাখছে।
সাম্প্রতিক মাসগুলোয় ত্রিপোলি ও এর আশপাশে সরকারি বাহিনীর সঙ্গে এলএনএমের সংঘর্ষের ঘটনা বেড়েছে। উভয় পক্ষের হামলা পাল্টা হামলায় এখন পর্যন্ত শতাধিক নিহত ও বাস্তুচ্যুত হয়েছে হাজারো মানুষ।

 

 

advertisement