advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘কোচ তো আমাদের খাওয়ায়ে দিতে পারবে না’

ক্রীড়া প্রতিবেদক,ইন্দোর থেকে
১৯ নভেম্বর ২০১৯ ১৩:১০ | আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০১৯ ১৫:৫৯
ছবি : আমাদের সময়
advertisement

বাংলাদেশ-ভারতের গোলাপি বলের টেস্ট নিয়েই এখন যত জল্পনা-কল্পনা। নিজেদের টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো দিবারাত্রির টেস্ট খেলতে নামছে দুদেশ। ফ্লাড লাইটের আলোয় গোলাপি বলে দুই দেশের মধ্যে অভিজাত ক্রিকেটের লড়াই শুরু হবে ২২ নভেম্বর কলকাতার বিখ্যাত ইডেন গার্ডেনে।

ইন্দোরের পাঁচ দিনের টেস্ট তিন দিনেই শেষ হয়ে যাওয়ায় বাংলাদেশ দুদিন ধরে গোলাপি বলে ফ্লাড লাইটের আলোয় কঠোর অনুশীলন করছে। এই টেস্ট খেলতে কলকাতা যাওয়ার আগে পেসার আল আমিন জানান, গোলাপি বল নিয়ে তারা পর্যাপ্ত অনুশীলন করেছেন।

এই টেস্ট খেলতে নামার আগে আলোচনা এখন গোলাপি বলের আচরণ কেমন হবে তা নিয়ে। দুদলই গো্লাপি বলে প্রথমবারের মতো খেলতে নামবে, তাই অনেক অজানার মধ্যে যারা মাঠে সেরাটুকু দিতে পারবেন, তারাই এগিয়ে যাবেন। বাংলাদেশ দলও তাই সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে অনুশীলন করছে।

বোলিং কোচ চার্লস ল্যাঙ্গাভেল্ট তাদের নিয়ে অনেক কাজ করেছেন জানিয়ে টিম হোটেলে পেসার আল আমিন বলেন, ‘আমরা মাঠে অনুশীলন করেছি, অনেক কাজ করেছি, কিন্তু কোচ তো আমাদের খাওয়ায়ে দিতে পারবে না।’

এই পেসার আরও বলেন, ‘আমরা যথেষ্ট অনুশীলন করেছি, মাঠে বাস্তবায়ন করতে পারলেই সফল হবো। তবে গোলাপি বলে বোলিং করা বোলারদের জন্য একটা পরীক্ষা।’

গত দুদিন অনুশীলনে অনেকক্ষণ করে বোলিং করেছেন প্রথম টেস্টে দলে জায়গা না পাওয়া আল আমিন ও মোস্তাফিজুর রহমান। কলকাতায় বাংলাদেশ নামতে পারে তিন পেসার নিয়ে। সে ক্ষেত্রে এবাদত হোসেন ও একজন ব্যাটসম্যান কম খেলাতে পারে বাংলাদেশ। ব্যাটসম্যান কম না নিয়ে খেললে বাদ পড়তে পারেন তাইজুল ইসলাম।

আজ মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় সকাল ১১টায় হোটেল ত্যাগ করেন টাইগাররা। ১২টা ১০ মিনিটের ফ্লাইটে কলকাতার উদ্দেশে রওনা দিয়েছে দল। আগামী দুদিন ইডেনে ফ্লাড লাইটের আলোয় অনুশীলনের পর ২২ তারিখ দুপুর ১টায় ভারতের মুখোমুখি হবেন মুমিনুলরা।

advertisement