advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতির নাম ব্যবহার করে ‘প্রতারণা’

নিজস্ব প্রতিবেদক
২১ নভেম্বর ২০১৯ ১৭:০৩ | আপডেট: ২১ নভেম্বর ২০১৯ ১৭:২৩
বনি আমিন ওরফে সাকিব
advertisement

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়ের নাম ব্যবহার করে প্রতারণার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)।

গ্রেপ্তারকৃত ওই ব্যক্তির নাম মো. বনি আমিন ওরফে সাকিব (২৯)।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (দক্ষিণ বিভাগ) লালবাগ জোনাল টিমের অতিরিক্ত উপ-কমিশিনার (এডিসি) খন্দকার লেনিন দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গতকাল বুধবার রাজধানীর দারুস সালাম থানার মিরপুর সরকারি বাংলা কলেজ সংলগ্ন ফুটওভার ব্রিজের নিচে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারের সময় তার কাছ থেকে প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত একটি মুঠোফোন ও ১৯টি ভিজিটিং কার্ড উদ্ধার করা হয়।

এসব ভিজিটিং কার্ডে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সহসভাপতি, সরকারি বাঙলা কলেজ শাখা ও রাজস্ব পরিদর্শক, ঢাকা ওয়াসা, পিপিআই রাজস্ব জোন-৩ লেখা ছিল।

এডিসি খন্দকার লেনিন আরও জানান, আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার জন্য সাকিব বিভিন্ন সময় নিজেকে ঢাকা ওয়াসার রাজস্ব পরিদর্শক ও মিরপুর বাঙলা কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহসভাপতি পরিচয় দিতেন।

এ ব্যাপারে ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় দারুস সালাম থানায় বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

ডিবি সূত্রে জানা যায়, গ্রেপ্তারকৃত সাকিব গত ৩১ অক্টোবর নিজেকে ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি পরিচয় দিয়ে এনসিসি ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে নিজের মুঠোফোন থেকে কল করে সাকিবকে ব্যাংকে চাকরি দেওয়ার জন্য বলেন। পরে তিনি আরেকটি মুঠোফোন থেকে ব্যাংক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে চাকরির বিষয়ে কথা বলেন এবং ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতির রেফারেন্স দেন।

ডিবি আরও জানায়, প্রকৃতপক্ষে প্রতারক সাকিব নিজেই নিজের চাকরির জন্য এনসিসি ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করেন। এ কাজে তিনি ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জয়ের নাম ব্যবহার করেন।

ব্যাংক কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পেরে ছাত্রলীগ নেতা জয় গত ১২ নভেম্বর শাহবাগ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) দায়ের করেন। পরে বিষয়টি তিনি গোয়েন্দা বিভাগের মাধ্যমে তদন্ত করার আবেদন করেন।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃত সাকিব প্রতারণার কথা স্বীকার করেছেন বলে জানিয়েছে ডিবি।

advertisement