advertisement
advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সিআইইউর ‘ওপেন ডে’ যেন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের মিলনমেলা

চট্টগ্রাম ব্যুরো
২৬ নভেম্বর ২০১৯ ১৯:৪৮ | আপডেট: ২৬ নভেম্বর ২০১৯ ১৯:৪৮
বেলুন উড়িয়ে ‘ওপেন ডে’ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন সিআইইউ উপাচার্য ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটিতে (সিআইইউ) উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে ২০২০ সালের স্প্রিং সেমিস্টারের ‘ওপেন ডে’। গতকাল সোমবার সকালে নগরীর জামাল খানের ক্যাম্পাসে বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন সিআইইউ উপাচার্য ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী।

এতে চট্টগ্রামের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে আগত ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী, তাদের অভিভাবক, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, সিআইইউর শিক্ষক ও কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কর্তৃপক্ষ জানায়, প্রতিবারের মতো এবারও সিআইইউর ওপেন ডে ভর্তিচ্ছুদের মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে। অনুষ্ঠানে ছিল স্পট অ্যাডমিশন, সেমিস্টার ফি ওয়েবার, ক্যারিয়ার আড্ডা, ক্যাম্পাস জবের দারুণ সুযোগ, স্কলারশিপ, ক্যাম্পাস ট্যুর, বিদেশের বিভিন্ন খ্যাতনামা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যৌথশিক্ষা কার্যক্রমের নানা তথ্যসহ আরও অনেক কিছু।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিআইইউর উপাচার্য ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী বলেন, মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করাই আগামী দিনে বড় চ্যালেঞ্জ। শিক্ষা জগতে ভিন্ন ধারার মনোবৃত্তি তৈরি করতে সিআইইউ নিজেকে একটি বিশেষায়িত ও মডেল প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টা করছে।

সিআইইউর বিজনেস স্কুলের অধ্যাপক ড. নুরুল আবসার নাহিদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্কুল অব সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. মো. রেজাউল হক খান, স্কুল অব লিবারেল আর্টস অ্যান্ড সোশ্যাল সায়েন্সেসের ডিন অধ্যাপক কাজী মোস্তাইন বিল্লাহ, স্কুল অব ল’র উপদেষ্টা অধ্যাপক মো. জাকির হোসেন, বিজনেস স্কুলের ডিন ড. নাঈম আবদুল্লাহ, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার আনজুমান বানু লিমা প্রমুখ বক্তব্য দেন।

ওপেন ডে’তে ভর্তি হতে চট্টগ্রাম ও শহরের বাইরের বিভিন্ন জায়গা থেকে আগত শিক্ষার্থীদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। সাতকানিয়া থেকে আসা মো. হাবিবুর রহমান নামের একজন অভিভাবক বলেন, ‘আমার পছন্দ ছিল মেয়ে ল পড়বে। কিন্তু সে ইংরেজিতে ফরম নিয়েছে। মেয়ের ইচ্ছার জয় হয়েছে।’

আমিনুল হক রাব্বি নামের সিআইইউর একজন বর্তমান শিক্ষার্থী তার ছোট ভাইকে বিবিএতে ভর্তি করাতে এসেছেন। তিনি বলেন, ‘আমি নিজেও এখানে পড়ছি। শিক্ষার পরিবেশটা সত্যিই অসাধারণ। ভাইকে কাছে রেখে পড়ানোর আনন্দটা অন্যরকম।’

কর্তৃপক্ষ আরও জানায়, পড়ালেখার পাশাপাশি গবেষণামূলক কার্যক্রমে অধিক মনোযোগী সিআইইউ। এখানে শিক্ষার গুণগত পরিবেশ ছাড়াও রয়েছে ক্লাব কার্যক্রম, অ্যামেরিকান কর্ণার, উন্নত ল্যাব, গ্রন্থাগারসহ নানা সুযোগ সুবিধা।

advertisement