advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

প্রায় দেড় লাখ ‘নববধূ কিনেছে’ হরিয়ানা!

অনলাইন ডেস্ক
৩০ নভেম্বর ২০১৯ ১৯:৪৩ | আপডেট: ৩০ নভেম্বর ২০১৯ ১৯:৪৩
প্রতীকী ছবি
advertisement

ভারতের হরিয়ানা রাজ্যে নারীর তুলনায় পুরুষের সংখ্যা অনেকটাই কম। এ জন্য রাজ্যের পুরুষরা অন্য রাজ্য থেকে ‘নববধূ কিনে’ আনেন। অবাক করা তথ্য হলো হরিয়ানার পুরুষরা এখন পর্যন্ত প্রায় এক লাখ ৩০ হাজার নববধূ কিনেছেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, ‘সেলফি উইথ ডটার ফাউন্ডেশন’ নামের একটি সংস্থা একটি জরিপ করেছে। প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক সুনীল জাগলানরের নেতৃত্বে এ জরিপ পরিচালনা করা হয়। আর এ জরিপেই এমনটি দাবি করা হয়েছে।

সুনীল জাগলানর জানিয়েছেন, ২০১৭ সালের জুলাই থেকে ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত পরিচালিত এ জরিপে ১২৫ জন স্বেচ্ছাসেবী নিয়োজিত ছিলেন।

তিনি জানান, প্রায় এক হাজার ৪৭০ জন নববধূ বিভিন্ন দামি জিনিস-পত্র নিয়ে শ্বশুড়বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়েছেন। আর বেশিরভাগ নববধূই নাবালিকা। তাদেরকে বিভিন্ন রাজ্যের প্রত্যন্ত এলাকা থেকে আনা হয়।

জরিপে দেখা গেছে, আসাম, পশ্চিমবঙ্গ, ঝাড়খণ্ড, বিহার, উড়িষ্যা, মহারাষ্ট্র, অন্ধ্রপ্রদেশ ও তামিলনাড়ু থেকে নববধূ কেনার প্রবণতা বেশি। অন্যান্য রাজ্য থেকেও অবিবাহিত মেয়েদেরকে মাত্র ২০ হাজার টাকায় হরিয়ানায় বিক্রি করে দেওয়া হয়। এসবের পেছনে দিল্লি ও পশ্চিমবঙ্গে দালাল চক্র রয়েছে।

করে হরিয়ানার জাঠ গোষ্ঠীর মধ্যে নববধূ কেনার এই প্রবণাতা বেশি দেখা যায়। এ ছাড়া রোহতাক, জিন্দ, হিসার, কৈথাল, যমুনাগর ও কুরুক্ষেত্র এলাকার জাঠ, যাদব, রোর ও ব্রাহ্মণদের মধ্যে নববধূ কেনার চল রয়েছে।

জরিপে জানা গিয়েছে, ২০১২ সালে হরিয়ানা রাজ্যে এক হাজার জন ছেলেদের অনুপাতে মেয়েদের সংখ্যা ছিল মাত্র ৮৩২জন। ২০১৯ সালের আগস্ট মাসে পর্যন্ত এক হাজার ছেলেদের মধ্যে মেয়েদের সংখ্যা মাত্র ৯২০ জন।

advertisement