advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সিদ্ধেশ্বরীতে বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক
৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ২০:৩০ | আপডেট: ৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০০:২৫
রাজধানীর সিদ্বেশ্বরী থেকে রুম্পা নামের এক বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রীর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

রাজধানীর সিদ্বেশ্বরীতে এক বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। গত বুধবার মধ্যরাতে রমনার ৬৮ সিদ্ধেশ্বরী সার্কুলার রোড থেকে (মালিবাগ সিআইডি অফিসের পার্শ্ববর্তী রাস্তার গলি) ওই ছাত্রীর রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য তার মরদেহ আজ বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আনুমানিক ২০ থেকে ২২ বছর বয়সী এই ছাত্রীর নাম রুবাইয়াত শারমিন রুম্পা। তার বাবা রকনুদ্দিন পুলিশের পরিদর্শক হিসেবে হবিগঞ্জে কর্মরত রয়েছেন।রুম্পা স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী বলে জানিয়েছে পুলিশ।তার পরনে শর্ট কামিজ ও প্যান্ট ছিল।

স্থানীয়রা বলছেন, আশপাশের কোনো একটি বহুতল ভবন থেকে লাফিয়ে পড়ে ওই তরুণী আত্মহত্যা করেছেন। কেউ আবার ধারণা করছেন, ওইসব ভবনের কোনো একটিতে ধর্ষণের পর হত্যা করে তাকে রাস্তায় ফেলে দেওয়া হয়েছে।

গত বুধবার মধ্যরাতে হারুনুর রশিদ নামের স্থানীয় এক বাসিন্দাসহ উপস্থিত কয়েকজন জানান, সিদ্ধেশ্বরীর সার্কুলার রোডে উপর হয়ে মেয়েটিকে পড়ে থাকতে দেখেন তারা। বহুতল ভবন থেকে নিচে পড়লেও নিহতের নাক-মুখ থেকে সামান্য রক্ত বের হয়। তার শরীরও ছিল ঠাণ্ডা। লাশের পাশেই পলিথিন ব্যাগে নিহতের স্যান্ডেল পড়ে ছিল। তারা ধারণা করছেন, মেয়েটিকে গত বুধবার দুপুরের দিকে হত্যা করে রাতে লাশ ফেলে দেওয়া হয়। ওই তরুণীর শরীর ঠান্ডা হওয়ার কারণে বহুতল ভবন থেকে পড়লেও রক্ত বের হয়নি।

রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মাইনুল ইসলাম বলেন, ‘স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে গত বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে মালিবাগ সিআইডি অফিসের পাশের রাস্তার গলি থেকে ওই তরুণীর লাশ উদ্ধার করা হয়। ধারণা করা হচ্ছে, কোনো একটি ভবনের উপর থেকে নিচে পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে। লাশের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।’

ওসি আরও বলেন, ‘ঘটনাস্থলের আশেপাশে বেশ কয়েকটি বহুতল ভবন আছে।কোন ভবন থেকে ঘটনাটি ঘটেছে তা এখনো জানা যায়নি। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে ঘটনাটি হত্যাকাণ্ড না আত্মহত্যা তা জানা যাবে।’

advertisement