advertisement
advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘ধর্ষণের মতো নৃশংস অপরাধ করলে এনকাউন্টার হবে’

অনলাইন ডেস্ক
৮ ডিসেম্বর ২০১৯ ১৭:০৮ | আপডেট: ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ ১৭:০৮
তালাসানি শ্রীনিবাস যাদব। ছবি: টুইটার
advertisement

ভারতের তেলেঙ্গানার নারী পশুচিকিৎসককে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় সন্দেহভাজন চার অভিযুক্ত পুলিশের গুলিতে নিহত হওয়ার ঘটনাকে সমর্থন করেছেন রাজ্যের জ্যেষ্ঠ মন্ত্রী তালাসানি শ্রীনিবাস যাদব।

তিনি বলেন, ‘পুলিশ যে পদক্ষেপ (এনকাউন্টার) নিয়েছে, তা সম্ভাব্য ধর্ষকদের জন্য একটি বার্তা।  নৃশংস অপরাধ যে করবে, সে পুলিশের এনকাউন্টারে নির্মূল হতে পারে।’

গতকাল শনিবার স্থানীয় একটি টেলিভিশনে সাক্ষাৎকার দেন রাজ্যের পশুপালনমন্ত্রী শ্রীনিবাস যাদব। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি অনলাইনের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। 

এনকাউন্টারের ঘটনা প্রসঙ্গে তেলেঙ্গানার পশুপালনমন্ত্রী বলেন, ‘এটা একটা শিক্ষা। কেউ অপরাধ করলে কারাদণ্ড বা জামিনের মতো সুবিধা পাবেন না। ওসব কিছু আর হবে না। এই ঘটনার মধ্য দিয়ে এমন বার্তা দেওয়া হয়েছে যে নৃশংস অপরাধ করলে এনকাউন্টার হবে।

শ্রীনিবাস যাদব বলেন, ‘এর (এনকাউন্টার) মাধ্যমে আমরা একটি কঠিন বার্তা দিয়েছি। আমরা দেশের জন্য একটি আদর্শ নির্ধারণ করেছি।’

এর আগে,পশুচিকিৎসককে ধর্ষণের ঘটনায় সন্দেহভাজন চার অভিযুক্ত গত শুক্রবার ভোরে তেলেঙ্গানার সাদনগরে পুলিশের গুলিতে নিহত হন।

পুলিশের দাবি, অভিযুক্ত ব্যক্তিরা পুলিশের অস্ত্র ছিনিয়ে আক্রমণ করে পালানোর চেষ্টা করেন। তখনই ‘এনকাউন্টার’ হয়। দেশটিতে বিচারবহির্ভূত এই হত্যাকাণ্ডের পক্ষে-বিপক্ষে মতপ্রকাশ করেছেন অনেকে।

তেলেঙ্গানার যোগাযোগমন্ত্রী পি অজয় কুমারও শ্রীনিবাস যাদবের মতো মন্তব্য করেছেন।  গত শুক্রবার তিনি বলেন, ‘দ্রুত বিচার নিশ্চিতে রাজ্য একটি রোল মডেল স্থাপন করেছে। আমরা দেখিয়েছি, কেউ যদি আমাদের মেয়েদের দিকে খারাপ নজর দেয়, তবে আমরা তার চোখ তুলে নেব।’

advertisement