advertisement
advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘ন ডরাই’র সেন্সর বাতিল ও প্রদর্শনী বন্ধে রুল জারি

বিনোদন প্রতিবেদক
১০ ডিসেম্বর ২০১৯ ১৬:৪৩ | আপডেট: ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ ১৬:৪৩
‘ন ডরাই’ চলচ্চিত্রের পোস্টার ও কমিক বই। ফাইল ছবি
advertisement

চলচ্চিত্র ‘ন ডরাই’-এর সেন্সর বাতিল, প্রদর্শনী ও বাজারে থাকা এর কমিক বই কেন প্রত্যাহার করা হবে না জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।সেইসঙ্গে আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, আইন মন্ত্রণালয় সচিব, ছবির প্রযোজক মাহবুব রহমান, পরিচালক তানিম রহমান অংশু ও চিত্রনাট্যকার শ্যামল সেনগুপ্তকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানিতে এ রুল জারি করেন। আদালতের রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট জুলহাস আহমেদ। সঙ্গে ছিলেন রিটকারী আইনজীবী মো. হুজ্জাতুল ইসলাম।

এর আগে, ৪ ডিসেম্বর ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত এবং অশ্লীলতার অভিযোগ এনে দেশের প্রথম সার্ফিং চলচ্চিত্র ‘ন ডরাই’র সেন্সর সনদ বাতিল ও প্রদর্শনী বন্ধে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. হুজ্জাতুল ইসলাম।

নোটিশে এর সেন্সর ও প্রদর্শন বাজার থেকে প্রত্যাহার এবং সংশ্লিষ্টদের মুসলিম সমাজের কাছে ক্ষমা চাইতে অনুরোধ জানানো হয়েছিল। না হলে ৭২ ঘণ্টা পর প্রয়োজনীয় আইনি পদক্ষেপ গ্রহণে আদালতের দ্বারস্থ হওয়ার বিষয়টিও নোটিশে উল্লেখ করা হয়।

নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে নোটিশের জবাব না পাওয়ায় এই আইনজীবী হাইকোর্টের রিট দায়ের করেন। সে রিটের শুনানি নিয়েই আজ আদালত রুল জারি করলেন।

এদিকে, আইনি নোটিশে আরও উল্লেখ্য করা হয়, ‘ন ডরাই’ চলচ্চিত্রের প্রধান চরিত্রের সঙ্গে হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর স্ত্রী হযরত আয়শার (রা) মিল রাখা হয়েছে। হযরত আয়শা (রা.) ইসলাম ধর্মে অত্যন্ত পবিত্র ও সম্মানিত। চলচ্চিত্রের প্রধান চরিত্রের সঙ্গে হযরত আয়শার নাম ব্যবহার করে অশ্লীল দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে যা মুসলমানদের ধর্মীয় মূল্যবোধে আঘাতের শামিল। চলচ্চিত্রটির প্রযোজক, পরিচালক এবং চিত্রনাট্যকার সস্তা প্রচারণার উদ্দেশ্যে ধর্মীয় উস্কানিমূলক পথ বেছে নিয়েছেন। এটি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৮ ধারা অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

চলচ্চিত্র সেন্সরবোর্ড ছবিটি প্রদর্শনের অনুমতি দিয়ে আইন লঙ্ঘন করেছেন। আইনি নোটিশে ‘ন ডরাই’ চলচ্চিত্রের সেন্সরশিপ বাতিল, প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শনী বন্ধ করা এবং বাজার থেকে ছবির কমিক ও এনিমেটেড ভিডিও প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়েছে।

অন্যদিকে, হাইকোর্টের রুল জারি প্রসঙ্গে দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনকে ‘ন ডরাই’র পরিচালক তানিম রহমান অংশু বলেন, ‘আমরা এখনো কোনো কাগজ হাতে পাইনি। আমাদের বিশ্বাস, আমরা নিয়ম বহির্ভূত কোনো কাজই করিনি। আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই আমরা আইনানুগভাবে এর উত্তর দেব।’

উল্লেখ্য, স্টার সিনেপ্লেক্স প্রযোজিত ‘ন ডরাই’ চলচ্চিত্রটি গত ২৯ নভেম্বর দেশের ৮টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়। চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় নির্মিত এর মূল চরিত্রের নাম আয়েশা। সিনেমায় আয়েশা চরিত্রে অভিনয় করেন সুনেরাহ্ বিনতে কামাল। তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন শরিফুল রাজ। চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেছেন তানিম রহমান অংশু।

advertisement