advertisement
advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

লেবানন থেকে স্বেচ্ছায় ফিরছেন আরও ৩৮৩ বাংলাদেশি

বাবু সাহা,লেবানন
১১ ডিসেম্বর ২০১৯ ১৭:৪৩ | আপডেট: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ ১৩:২০
লেবানন থেকে দেশে ফিরতে আগ্রহীদের হাতে বিমান টিকিট তুলে দিচ্ছেন রাষ্ট্রদূত আবদুল মোতালেব সরকার। ছবি: আমাদের সময়
advertisement

লেবানন সরকারের দেওয়া সুযোগ নিয়ে দ্বিতীয় ধাপে দেশে ফিরছেন আরও ৩৮৩ বাংলাদেশি কর্মী। তাদের মধ্যে শারীরিকভাবে অসুস্থ আছেন ৪০ বাংলাদেশি। আগামী ১২ ডিসেম্বর থেকে ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত মোট ৭টি ফ্লাইটে এসব কর্মীরা দেশে ফিরবেন।

গতকাল মঙ্গলবার রাজধানী বৈরুতে বাংলাদেশ দূতাবাসের হলরুমে আনুষ্ঠানিকভাবে ৩৮৩ জনের হাতে বিমান টিকেট তুলে দেন লেবাননে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকার।

এ সময় শ্রম সচিব আব্দুল্লাহ আল মামুনসহ দূতাবাসের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত বলেন,‘বর্তমানে বিমানের টিকেটের উচ্চ মূল্য থাকার পরও বৈরুত দূতাবাসের প্রচেষ্টায় আমরা তাদেরকে সঠিক সময়ে দেশে পাঠাতে সক্ষম হয়েছি।’ বাকিদেরও পর্যায়ক্রমে দেশে পাঠানো হবে বলে তিনি জানান।

অবৈধ থাকার কারণে দীর্ঘদিন পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন ছিল এই প্রবাসীরা। তাই এক বছরের জরিমানা ও বিমানের টিকিটের টাকা পরিশোধ করে দেশে যাওয়ার সুযোগ পেয়ে উৎফুল্ল তারা।

এ জন্য অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত এবং বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান সবাই। এর আগে নভেম্বর মাসে প্রথম দফায় দেশে ফেরেন ১৪৪ জন কর্মী।

প্রসঙ্গত, লেবানন সরকার অবৈধ বাংলাদেশিদের দেশে ফেরার সুযোগ দেওয়ায় চলতি বছরের সেপ্টেম্বর থেকে দেশে ফিরে যাচ্ছেন বাংলাদেশিরা। বৈরুত দূতাবাসের বিশেষ কর্মসূচির আওতায় দেশে ফিরতে প্রায় ২ হাজার ৫০০ বাংলাদেশি নিবন্ধন করেছেন। এরই অংশ হিসেবে এসব প্রবাসীদের দেশে ফেরানো হচ্ছে।

advertisement