advertisement
advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সিলেটের টানা ৩ হার, চট্টগ্রামের টিকিট ঢাকার হাতে

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ০১:৪৩ | আপডেট: ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ০১:৪৩
advertisement

ঢাকার প্রথম পর্বের শেষ ম্যাচে সিলেটকে ২৪ রানে হারিয়ে বন্দর নগরী চট্টগ্রামের টিকিট কেটেছে মাশরাফি বিন মোর্ত্তজার ঢাকা প্লাটুন। সিলেটের পুড়লো টানা তিন হারের হতাশায়।

টস হেরে আগে ব্যাট করে এনামুল হক বিজয়ের ৬২ রানের ইনিংসে ভর করে সিলেটকে ১৮৩ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় ঢাকা। ৯.৪ ওভার স্থায়ী উদ্বোধনী জুটিতে ৮৫ রান তোলেন বিজয়-তামিম। ২৮ বলে ৫ চারে ৩১ রান করে তামিম ফিরলে ভাঙে জুটি, তামিম ফিরে গেলেও ফিফটি তুলে নেন এনামুল হক বিজয়।

লরি ইভান্সকে নিয়ে যোগ করেন আরও ২৫ রান। ৪২ বলে ৮ চার ১ ছক্কায় ৬২ রান করে দেলোয়ার হোসেনের বলে মোসাদ্দেক হোসেনের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন বিজয়। জাকের আলি খেলেন ১২ বলে ২ ছক্কায় ২০ রানের ক্যামিও ইনিংস। ২১ বলে ২ চারে ঠিক ২১ রান করে পেসার এবাদত হোসেনের বলে মোসাদ্দেক হোসেনকে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান লরি ইভান্স।

লঙ্কান অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরা ১১ বলে ১ চার ২ ছক্কায় ২৩ ও ওয়াহাব রিয়াজ ৭ বলে ২ ছক্কায় ১৭ রানে অপরাজিত থাকেন।

সিলেটের হয়ে ৩ ওভারে ১৬ রান খরচায় ১ উইকেট শিকার করেন মোসাদ্দেক। একটি করে উইকেট নেন এবাদত হোসেন, নাইম হাসান ও দেলোয়ার হোসেন।

টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে সিলেট থান্ডার ব্যাটসম্যানরা প্রতিযোগিতায় নামেন আসা যাওয়ার মিছিলে। দলীয় ৫২ রানে সাজঘরে ফেরেন ৪ ব্যাটম্যান। ৯৭ রান করতে যায় আরও দুটি। তবে রান তোলার ক্ষেত্রে দ্রুতদা দেখিয়েছিল দলটি। ১২.৪ ওভারেই ১০০ রান তুলে ফেলে সিলেট।

দলের হয়ে একাই লড়াই চালিয়ে যান অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ৫ উইকেট চলে যাওয়ার পর নাইম হাসানের (১০) সাথে ৩৬ ও দেলোয়ার হোসেনের (১৭) সাথে গড়েন ৩৪ রানের জুটি।

মাশরাফির দ্বিতীয় শিকার হয়ে দেলোয়ার সাজঘরে ফেরেন। তবে নিজের অর্ধশতক তুলে নেন মোসাদ্দেক। তিনি অপরাজিত থাকেন ৪৪ বলে ৬ চার ও ২ ছক্কায় ৬০ রানে। সিলেট থান্ডারকে থামতে হয় ১৫৮ রানে।

ঢাকার হয়ে দুটি করে উইকেট শিকার করেন মাশরাফি ও হাসান মাহমুদ। একটি উইকেট নেন ওয়াহাব রিয়াজ।

 

advertisement