advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

টেকনাফে গোলাগুলিতে রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত, আহত ২ র‌্যাব

টেকনাফ প্রতিনিধি
৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৮:৫৫ | আপডেট: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৯:৪৭
প্রতীকী ছবি
advertisement

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় র‌্যাবের সঙ্গে গোলাগুলিতে আনোয়ার সাদেক (৩৫) নামে এক রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত হয়েছে। এ সময় র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন।

গতকাল সোমবার বিকেলে হ্নীলা ইউনিয়নের নয়াপাড়া শরণার্থী শিবিরে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সাদেক রোহিঙ্গা ডাকাত জাকিরের সহযোগী।

আহতরা হলেন- মোহাম্মদ ইমরান ও শাহাব উদ্দিন। তারা দুজন কক্সবাজার র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব-১৫) টেকনাফ ক্যাম্পের সদস্য।

র‌্যাব সূত্র জানায়, ইয়াবা পাচারের গোপন তথ্য পেয়ে উপজেলার হ্নীলার নয়াপাড়া মোচনী শরণার্থী শিবিরে অবস্থান নেয় র‌্যাব। এ সময় সশস্ত্র রোহিঙ্গা ডাকাত দলের সদস্যরা র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে পাহাড়ের দিকে চলে যায়। ঘটনাস্থল থেকে এক ব্যক্তির লাশ, অস্ত্র-গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। এতে দুই র‌্যাব সদস্য গুলিবিদ্ধ হন। পরে তাদের উদ্ধার করে টেকনাফ মেরিন সিটি হাসপাতালে নেওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠান।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে র‌্যাব-১৫ এর উপ-অধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ রবিউল ইসলাম জানান, বিকেলে ইয়াবাবিরোধী অভিযানে গেলে র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি চালায় ডাকাতেরা। এতে দুই র‌্যাব সদস্য গুলিবিদ্ধ হন। তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) নেওয়া হচ্ছে।

ঘটনাস্থল থেকে আনোয়ার সাদেক নামে এক ডাকাতের গুলিবিদ্ধ লাশ ও অস্ত্র-গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান র‌্যাবের এই কর্মকর্তা।

একাধিক সূত্রের দাবি, রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন পাহাড়ি এলাকায় চিহ্নিত কিছু ইয়াবা চোরাকারবারি ও সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের নিয়ে ইয়াবা চোরাচালান, ছিনতাই, অবৈধ অস্ত্রের মজুত, মুক্তিপণ ইত্যাদি অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছে। ক্যাম্প এলাকায় র‌্যাবের ওপর গুলিবর্ষণের ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে।

advertisement