advertisement
advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

কারও কথায় আমি খেলা ছাড়ার পক্ষপাতি না : মাহমুদউল্লাহ

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৩ জানুয়ারি ২০২০ ১৯:১৪ | আপডেট: ১৩ জানুয়ারি ২০২০ ১৯:৪৭
ছবি : আমাদের সময়
advertisement

অন্য কারও কথায় অবসরে যাবেন না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অন্যতম ভরসার প্রতীক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্ত্তজার অবসরে যাওয়া নিয়ে এক প্রশ্নের উত্তরে নিজের এমন সিদ্ধান্তের কথা জানালেন তিনি।

বেশ কিছুদিন ধরে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হলেই অবসরে যাওয়া নিয়ে প্রশ্ন শুনতে হয় মাশরাফিকে। এবার মাশরাফির অবসর নিয়ে প্রশ্নের উত্তর দিতে হলো দলের অন্যতম ব্যাটিং স্তম্ভ রিয়াদকেও।

আজ সোমবার সন্ধ্যায় শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রেস কনফারেন্স কক্ষে রিয়াদ বলেন,  ‘যখন আমরা ক্রিকেট খেলা স্টার্ট করি, ক্রিকেটকে ভালোবেসেছি, খেলেছি। এখন এটা আমাদের পেশা হয়েছে। শুরু থেকেই আমি কখনো চিন্তা করিনি ক্রিকেটারই হব। ভালোবেসে পড়াশোনার পাশাপাশি খেলেছি, দেন এটা আমার পেশা হয়েছে।’

এই কথা বলার পরেই রিয়াদ আরও কড়া সুরে বলেন, ‘কারও কথায়ও আমি খেলা শুরু করিনি, কারও কথায় আমি খেলা ছাড়ার পক্ষপাতিও না।’

জাতীয় ক্রিকেট দলের পঞ্চ পাণ্ডবের মধ্যে অন্যতম রিয়াদ। মাশরাফির সঙ্গে এক যুগেরও বেশি সময় ধরে ক্রিকেট খেলছেন তিনি। এই সতীর্থের নিঃশ্বাস-প্রশ্বাস সবকিছুই চেনা তার। মাশরাফির অবসর নিয়ে তার সঙ্গে কথাও হয়েছে। কিন্তু বিশ্বাসের জায়গা থেকে তিনি গণমাধ্যমের সামনে তা প্রকাশ করতে চান না।

মাশরাফির অবসরে যাওয়া নিয়ে রিয়াদ বলেন, ‘প্রথমত আমি এটা এভাবে চিন্তা করি, এটা মাশরাফি ভাইয়ের সিদ্ধান্ত। অবসর নিয়ে মাশরাফি ভাইয়ের সাথে এক দুই বার আমার কথা হয়েছে কিন্তু আমি এটা শেয়ার করতে পারব না। যেহেতু এটা ব্যাক্তিগত বিষয়, বিশ্বাসের একটা ব্যাপার আছে। আমার শেয়ার করা ঠিক হবে না। সবকিছুর শেষে এটা ওনারই সিদ্ধান্ত।’

আজকের ম্যাচে মাশরাফির খেলা নিয়েও প্রসংশা করেন রিয়াদ। বলেন, ‘হ্যাটস অব টু মাশরাফি ভাই, কারণ ১৪টি সেলাই নিয়ে খেলেছেন। এটা অবিশ্বাস্য। উনার জায়গায় আমি থাকলে জীবনে চিন্তাও করতে পারতাম না খেলা। খেলেছেন, ভালো বোলিং করেছেন, একটি ভালো ক্যাচও নিয়েছেন।’

মাশরাফিও মনে করেন এটা সম্পূর্ণ তার নিজের সিদ্ধান্ত। তিনি বারবারই বলেছেন, ক্রিকেট খেলা চালিয়ে যাবেন। আর জাতীয় দলে খেলা মানেই যে ক্রিকেট নয় এটাও স্মরণ করে দিয়েছেন ম্যাশ। তবে বিসিবি যদি চায় অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিতে প্রস্তুত তিনি। এ ছাড়া যদি তাকে দলে বিবেচনা করা হয় তাহলেও মন-প্রাণ দিয়ে খেলবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

advertisement