advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ওমানের নয়া সুলতানের সঙ্গে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রীর সাক্ষাৎ

ওমান প্রতিনিধি
১৪ জানুয়ারি ২০২০ ২০:৪২ | আপডেট: ১৪ জানুয়ারি ২০২০ ২০:৪২
প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমেদ
advertisement

ওমানের নতুন সুলতান হাইথাম বিন তারিক আল সাঈদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন বাংলাদেশ সরকারের প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমেদ। আজ মঙ্গলবার ওমানের রাষ্ট্রীয় ভবন আল-আলম প্যালেসে সাক্ষাৎ করেন তারা।

এ সময় বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমেদ প্রয়াত সুলতান কাবুস বিন সাঈদের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেন। একই সঙ্গে নয়া সুলতানকে অভিনন্দন জানান।

তবে নয়া সুলতানের সঙ্গে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রীর সাক্ষাতের বিষয়টি ভালোভাবে নিচ্ছেন না বাংলাদেশি প্রবাসীরা। অনেকেই তাদের সামাজিক মাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

ওমান প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধা নোমান মোহাম্মাদ তার ফেসবুখে লিখেছেন- বিশ্বের বিভিন্ন রাষ্ট্র-সরকার প্রধানগণ ওমানে এসেছেন প্রয়াত সুলতান কাবুসের জন্য শোক প্রকাশ এবং নব নির্বাচিত সুলতানকে শুভেচ্ছা জানাতে। অথচ আমাদের প্রধানমন্ত্রী দুবাইতে আছেন তিন দিনের সফরে। তিনি ওমানে না এসে পাঠিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী মহোদয়কে। সরকার সবসময় আমরা ওমান প্রবাসীদের সাথে বিমাতাসূলভ আচরণ করে আসছে।

তিনি আরও বলেন, ১৯৮৫ সালে ওমানের ১৫ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে দাওয়াত দিয়েছিলেন তৎকালীন রাষ্ট্রপতি এরশাদকে। তিনি না এসে পাঠালেন তৎকালীন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাকা চৌধুরীকে। ওমান সরকারের দাওয়াতের অমর্যাদার খেসারত এখনও ওমান প্রবাসীরা দিয়ে যাচ্ছি। এবারের খেসারত কি দিতে হয় আল্লাহ জানেন।

তিনি প্রশ্ন রেখে আরও বলেন, এটা কূটনৈতিক ব্যর্থতা না অন্য কিছু?

ওমানের সুলতানের মৃত্যুতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকার প্রধানরা ওমানে আসলেও আমাদের প্রধানমন্ত্রী কেন আসলেন না? এখানে প্রটোকল ইস্যু নাকি কূটনীতিক ইস্যু আছে- এমন প্রশ্নের উত্তরে ওমানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম সরওয়ার বলেন, ‘তিনি ভবিষ্যতে আসবেন ইনশাআল্লাহ।’

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার ওমানের রাষ্ট্রপ্রধান সুলতান কাবুস বিন সাঈদ ইন্তেকাল করেন। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প থেকে শুরু করে বিশ্বখ্যাত বহু নেতা কাবুসের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রাষ্ট্রীয় শোকও পালন করা হয়। মধ্যপ্রাচ্যের সকল রাষ্ট্রপ্রধানসহ বিশ্বের প্রায় ৪০টি দেশের রাষ্ট্রপ্রধানরা এসেছেন ওমানে।

advertisement