advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সৌদির অবৈধ বাংলাদেশিদের ফেরাতে প্রত্যাবাসন সেবা চালু

কামাল পারভেজ অভি,সৌদি আরব
১৬ জানুয়ারি ২০২০ ১৮:৫১ | আপডেট: ১৬ জানুয়ারি ২০২০ ১৮:৫১
জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেট থেকে দেশে ফেরার প্রত্যাবাসন সেবা নিচ্ছেন বাংলাদেশিরা। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

সৌদি আরবে অবস্থানরত অবৈধ বাংলাদেশি প্রবাসীদের দেশে ফেরাতে প্রত্যাবাসন সেবা চালু করা হয়েছে। রিয়াদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের পর এবার জেদ্দা বাংলাদেশ কনস্যুলেট থেকেও এ সেবা পাওয়া যাবে। সৌদি সরকার এ বিশেষ প্রত্যাবাসন কর্মসূচি ঘোষণা করে।

শুক্র-শনি এবং সরকারি ছুটির দিন ছাড়া প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত জেদ্দার নাজলা এলাকাস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেট কার্যালয় থেকে প্রবাসী বাংলাদেশিরা এই সেবা নিতে পারবেন। এ বিষয়ে বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল জেদ্দার শ্রম কল্যাণ উইং। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, যাদের কোম্পানি/ মুয়াসসাসা রিয়াদে অবস্থিত এবং ইকামার মেয়াদ উত্তীর্ণ, কোনো মামলা/জরিমানা/গাড়ি নেই শুধুমাত্র তারাই তাদের পাসপোর্ট, ইকামআ/ইকামা না থাকলে পাসপোর্টে ভিসার পাতার হুদুদ নাম্বারসহ দুই সেট কপি সঙ্গে আনতে হবে। যাদের ইকামা (রেসিডেন্ট পারমিট) মেয়াদ উত্তীর্ণ এবং হুরুব (কর্মস্থল থেকে পালাতক), নিজের নামে গাড়ি, ট্র্যাফিক জরিমানা, কোনো ধরনের মামলা নেই এমন বাংলাদেশিরা কোনো ধরনের জেল জরিমানা ছাড়াই সৌদি আরব ছাড়তে পারবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়- এ সেবা নিয়ে দেশে গেলে প্রবাসীর আবার সৌদি আরব আসতে পারবেন। তবে গৃহকর্মী, নিয়োগকর্তার ব্যক্তিগত গাড়িচালক, বাসার কেয়ারটেকার এই সুবিধা নিতে পারবেন না। এই সেবা নেওয়া প্রবাসীদের সঙ্গে স্ত্রী-সন্তান থাকলে তাদের ইকামার ফি ওই প্রবাসীকে পরিশোধ করতে হবে।

সৌদি আরবে বিভিন্ন কোম্পানি বা কোনো প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিলেন বা আছেন কিন্তু ইকামা বা রেসিডেন্ট পারমিটের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে এবং নিয়োগদাতা প্রতিষ্ঠান সেটি নবায়ন করে দিচ্ছে না এমন বাংলাদেশিরা কোনো ধরনের জেল জরিমানা ছাড়াই দেশে ফেরত যেতে পারবেন। এ ছাড়া দেশে ফেরত যেতে আগ্রহীদের আবেদন গ্রহণ করে সেটি সংশ্লিষ্ট লেবার অফিসে জমা দিবে কনস্যুলেট। লেবার অফিস ছাড়পত্র দিলেই তারা ১৫ দিনের মধ্যে বিমানের টিকিট কিনে দেশে যেতে পারবেন বলে জানানো হয়ে বিজ্ঞপ্তিতে।

advertisement