advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

অফিসার্স ক্লাবের নতুন সাধারণ সম্পাদক মেজবাহ

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৮ জানুয়ারি ২০২০ ২০:০০ | আপডেট: ১৯ জানুয়ারি ২০২০ ০৯:০১
অতিরিক্ত সচিব মেজবাহ উদ্দিন। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

ঐতিহ্যবাহী অফিসার্স ক্লাব, ঢাকার নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে রেকর্ড গড়ে জয়ী হয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মেজবাহ উদ্দিন। তিনি তার প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক সচিব মো. ইব্রাহিম হোসেনকে ৯৪৫ ভোটে পরাজিত করেছেন। মেজবাহ পেয়েছেন ২ হাজার ৫৯০ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বী ইব্রাহীম পেয়েছেন ১ হাজার ৬৪৫ ভোট।

অন্যদিকে, কোষাধ্যক্ষ নির্বাচিত হয়েছেন জননিরাপত্তা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব জাহাঙ্গীর আলম। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। অফিসার্স ক্লাবের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী মন্ত্রিপরিষদ সচিব সভাপতির দায়িত্বে থাকেন। এ পদে কোনো নির্বাচন হয় না।

২০২০-২০২১ সালের দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে ২৩ সদস্যের কার্যনির্বাহী কমিটির ২২ জন ক্লাবের সদস্যদের ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচনে তিনজন ভাইস চেয়ারম্যান, তিনজন যুগ্ম-সম্পাদক এবং ১৪ জন সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। অফিসার্স ক্লাবের ৫ হাজার ৪৮৪ জন ভোটারের ৪ হাজার ২৩৫ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। আজ শনিবার ভোর ৫টায় ক্লাবের সহস্রাধিক সদস্যের উপস্থিতিতে ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে কে.এম. মোজাম্মেল হক ২ হাজার ১৫ ভোট, মো. আনছার আলী খান ২ হাজার ১১ ভোট ও এম. খালিদ মাহমুদ ১ হাজার ৭৭২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

কোষাধ্যক্ষ পদে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলম ১ হাজার ৮৫৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী একই মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব ড. মো. হারুন-অর-রশিদ বিশ্বাস পেয়েছেন ১ হাজার ৬০০ ভোট।

যুগ্ম-সম্পাদক পদে মুস্তাকীম বিল্লাহ ফারুকী ৩ হাজার ৫০৯ ভোট, অধ্যাপক ড. ফেরদৌসী খান ৩ হাজার ৬২ ভোট ও মো. আজহারুল ইসলাম খান ৩ হাজার ৫১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

নির্বাচিত সদস্যরা হলেন অধ্যাপক ডা. মনিলাল আইচ লিটু, ডা. মো. আমিনুল ইসলাম, তানিয়া খান, মুহাম্মদ সাকিব সাদাকাত, মো. দেলোয়ার হোসেন, মো. আলমগীর হোসেন, অধ্যাপক আশরাফুন নেসা রোজি, সুরাইয়া পারভীন শেলী, মো. আখতারুজ্জামান, এম এ মাজিদ, জসীম উদ্দীন হায়দার, রথীন্দ্রনাথ দত্ত, স্থপতি মীর মনজুরুর রহমান এবং ড. মো. জাকেরুল আবেদীন।  

advertisement